Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

Cyclone Remal ঘূর্ণিঝড় রিমাল : পূর্ব বর্ধমানে ৪টি ব্লক ক্ষতিগ্রস্ত, মৃত ২


 

Cyclone Remal 

ঘূর্ণিঝড় রিমাল : পূর্ব বর্ধমানে ৪টি ব্লক ক্ষতিগ্রস্ত, মৃত ২


Jagannath Bhoumick 
Sangbad Prabhati, 27 May 2024

জগন্নাথ ভৌমিক, পূর্ব বর্ধমান : ঘূর্ণিঝড় রিমাল এর প্রভাবে রাজ্যজুড়ে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ অনেক। সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকা থেকে অনেকটা দূরে হলেও পূর্ব বর্ধমান জেলাতেই প্রচুর ক্ষয়ক্ষতির খবর মিলেছে। জেলাশাসক কে রাধিকা আইয়ার জানিয়েছেন, মোট চারটি ব্লক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে কেতুগ্রাম-১, কেতুগ্রাম-২, রায়না-২ এবং পূর্বস্থলী-২ ব্লক। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পরিসংখ্যানে জানা যায়, জেলা জুড়ে মোট ৩১টি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভারি বর্ষণের কারণে মোট ২১৬ জন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ঝড়ের পরবর্তী সময়ে সোমবার মেমারি-১ ব্লকের কলানবগ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক ই পরিবারে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতরা সম্পর্কে পিতা-পুত্র। মেমারি-১ ব্লকের দলুইবাজার ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের কোনারপাড়ার বাসিন্দা পিতা-পুত্র'র নাম ফোরে সিং ও তরুণ সিং। 

জেলা শাসকের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পূর্ব বর্ধমানের ডিরেক্টর এআরডি জানিয়েছেন গত ২৪ ঘন্টায় কোন গৃহপালিত প্রাণীর মৃত্যু হয়নি। পূর্ব বর্ধমানের ডেপুটি ডিরেক্টর অফ এগ্রিকালচার থেকে জানানো হয়েছে, জেলার কোনও এলাকা থেকে কোনও কৃষি ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি৷

ভারী বর্ষণে মোট ৪৩টি কাঁচা ঘর আংশিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং গত ২৪ ঘন্টায় ৫টি কাঁচা ঘর সম্পূর্ণরূপে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের কারণে জেলার কোনো এলাকা থেকে কোনো ব্যক্তিকে উদ্ধার বা সরিয়ে নেওয়া হয়নি। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় কোনো ত্রাণ শিবির খোলা হয়নি। ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের প্রয়োজন অনুযায়ী ত্রাণ ব্যবস্থা বিতরণ করা হয়েছে। ভারী বৃষ্টিপাত বা এর সাথে সম্পর্কিত প্রভাবের কারণে গত ২৪ ঘন্টার মধ্যে কোনও বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

জেলা শাসকের তরফে জানানো হয়েছে সমস্ত ব্লক, মহকুমা এবং পৌরসভাগুলিতে কন্ট্রোল রুমগুলি সক্রিয় রয়েছে। গাছ কাটার, নৌকা ইত্যাদি সহ বিভিন্ন অনুসন্ধান এবং উদ্ধার সরঞ্জাম নিয়ে ক্যুইক রেসপন্স টিম, সিভিল ডিফেন্স ভলান্টিয়ার্স এবং আপদা মিত্র স্বেচ্ছাসেবকরা সক্রিয় রয়েছে। পুলিশ সুপার, পূর্ব বর্ধমানের অধীনে একটি এসডিআরএফ দল সক্রিয় রয়েছে।