চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

সরকারি স্বাবলম্বন প্রকল্প বিষয়ে যৌনকর্মীদের বার্তা দিতে বর্ধমান মহিলা থানার উদ্যোগ



সরকারি স্বাবলম্বন প্রকল্প বিষয়ে যৌনকর্মীদের বার্তা দিতে বর্ধমান মহিলা থানার উদ্যোগ 




Sangbad Prabhati, 14 March 2024

ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : যৌনকর্মীদের জন্য স্বাবলম্বন প্রকল্প বিষয়ে বার্তা দিল পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের বর্ধমান মহিলা থানা। অর্থাৎ যে সমস্ত মহিলা যৌনকর্মী অথবা তাদের সন্তানরা যারা ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সের মধ্যে, সেই সমস্ত মহিলাদের জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সুযোগ-সুবিধা এবং প্রশিক্ষণ দেওয়ার বিষয়ে অবগত করার জন্য বৃহস্পতিবার পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের মহিলা থানার উদ্যোগে এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বর্ধমান সহযোদ্ধার সহযোগিতায় বর্ধমানের মহাজনটুলিতে একটি কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। প্রায় ১০০ জন মহিলা যৌনকর্মী উপস্থিত ছিলেন। 

আলোচনায় যৌনকর্মীরা জানায় এখনো পর্যন্ত তাদের মধ্যে থেকে অনেকেরই লক্ষ্মীর ভান্ডার, স্বাস্থ্যসাথী অথবা যৌনকর্মীর সচিত্র পরিচয় পত্র হয়নি। সেই বিষয়ে তারা যাতে সুবিধা পায় জেলা পুলিশের মহিলা থানার ভারপ্রাপ্ত ইন্সপেক্টর কবিতা দাস তাদের আশ্বস্ত করেন।

আই সি কবিতা দাস তাদের জানান, তারা যে যার মতো এই পেশাতে থেকে স্বচ্ছতার সঙ্গে শরীরকে ভালো রেখে কাজ করে চলুক এবং সমাজের বুকে তারা চাইলে একজন প্রতিষ্ঠিত মানুষ হতে পারে সেই জন্যই সরকারও তাদের পাশে আছে। স্বাবলম্বন প্রকল্পে তারা যদি প্রশিক্ষণ নেয় তারা নিজের পরিচয় তারা তৈরি করতে পারবে এবং সেই সময় নিজের যৌনকর্মীর পেশা ছেড়ে স্বাবলম্বন প্রকল্প থেকেই সরকারি কাজেও যুক্ত হতে পারে।

এদিন পূর্ব বর্ধমান জেলার মহাজনটুলির একটি বেসরকারি লজের মাঠে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয় বর্ধমান সহযোদ্ধার পক্ষ থেকে। এদিনের এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বর্ধমান মহিলা থানার ভারপ্রাপ্ত ইন্সপেক্টর কবিতা দাস, বর্ধমান সহযোদ্ধার সম্পাদক প্রীতিলতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সহ-সভাপতি ফাল্গুনী দাস রজক, সক্রিয় সদস্য দেবনাথ মুখার্জী সহ জেলা পুলিশের মহিলা অফিসার এবং কর্মীরা।

জেলা পুলিশের মহিলা থানার এই উদ্যোগে সরকারি প্রকল্প সম্পর্কে জানার পর যৌনকর্মীরা সাধুবাদ জানাই জেলা পুলিশকে এবং রাজ্য সরকারকে। তারা চায় তাদের যে সমস্ত সুযোগ সুবিধা এখনো তারা পায়নি তারা যেন সরকারি ভাবে সেই সুযোগ-সুবিধা দ্রুততার সঙ্গে পায়। পাশাপাশি মহিলা থানার পক্ষ থেকে যৌনকর্মীদের শিশুদের জন্য চকলেট এবং যৌনকর্মীদের হাতে নারী দিবসকে উপলক্ষ্য করে গোলাপ ফুল তুলে দেওয়া হয়।। এবং শরীর সুস্থ রাখার জন্য বর্ধমান মহিলা থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক কবিতা দাস এবং বর্ধমান সহযোদ্ধার সহ-সভাপতি ফাল্গুনী দাস রজক যোগাসন নিয়ে বেশ কিছু তথ্য তুলে ধরেন।