চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

একশো দিনের কাজের মজুরদের বাড়ি বাড়ি পঞ্চায়েতের উপ প্রধান


 

একশো দিনের কাজের মজুরদের বাড়ি বাড়ি পঞ্চায়েতের উপ প্রধান




Atanu Hazra
Sangbad Prabhati, 12 February 2024

অতনু হাজরা, জামালপুর : কলকাতার ধর্না মঞ্চ থেকে তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন ২১ লক্ষ গরীব মানুষের প্রাপ্য ১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি মিটিয়ে দেবেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন দীর্ঘ দিন ধরে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ১০০ দিনের কাজের টাকা আটকে রেখে বাংলার সাধারণ মানুষকে অমানবিক বঞ্চনা করছে। তার বিরুদ্ধে দীর্ঘ সময় ধরে তিনি প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন। বকেয়া টাকার দাবিতে তৃণমূলের সাংসদরা দিল্লিতেও ধর্ণা আন্দোলনে সামিল হয়েছিলেন। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের কোনও রকম হেলদোল নেই দেখে গরীব মানুষদের স্বস্তি দিতে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন ২১ লক্ষ মানুষের হকের কাজের টাকা কেন্দ্র না দিলেও রাজ্য সরকার মিটিয়ে দেবেন। ২১ শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ এই ২১ লক্ষ মানুষের এ্যাকাউন্টে ১০০ দিনের কাজের টাকা ঢুকে যাবে। সেই ঘোষণায় খুশির জোয়ার বয়ে যায় বঞ্চিত এই মানুষ গুলোর মনে। 

 মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণাকে মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেসের তরুণ নেতা জামালপুরের ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের উপ প্রধান সাহাবুদ্দিন মন্ডল ওরফে পাঞ্জাব। তিনি তাঁর টিম নিয়ে তাঁর পঞ্চায়েতের অন্তর্গত প্রতিটি বুথে বুথে পৌঁছে যাচ্ছেন যাঁরা ১০০ দিনের কাজের টাকা পাননি তাঁদের বাড়িতে। দেখে নিচ্ছেন তাঁদের ব্যাঙ্কের পাসবই ঠিক আছে কিনা যাতে রাজ্য সরকারের পাঠানো টাকা তাঁদের পেতে অসুবিধা না হয়। কোনো অসুবিধা থাকলে সাথে সাথেই ব্যবস্থা নিচ্ছেন। এরই সঙ্গে তিনি প্রচারও করছেন তাঁদের পাওনা ন্যায্য টাকা যা কেন্দ্র সরকার অন্যায় ভাবে আটকে রেখেছে সেই টাকা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় মিটিয়ে দিচ্ছেন। এই সরকার যে কতটা জনদরদী সরকার তার প্রমাণ তিনি বারে বারে রাখছেন। পাঞ্জাব বাবু বলেন জন প্রতিনিধি হিসাবে তিনি ওই অসহায় মানুষগুলোর পাশে থাকার চেষ্টা করছেন।