Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

Book Fair স্বাধীন ভারতে জামালপুরে প্রথম জেলা বই মেলার উদ্বোধনে উদ্দীপনা


 

Book Fair 

স্বাধীন ভারতে জামালপুরে প্রথম জেলা বই মেলার উদ্বোধনে উদ্দীপনা




Atanu Hazra
Sangbad Prabhati, 11 January 2024

অতনু হাজরা, জামালপুর : স্বাধীন ভারতে জামালপুরে এই প্রথম অনুষ্ঠিত হচ্ছে বই মেলা। স্বাভাবিক ভাবেই জামালপুর ব্লক জুড়ে ছাত্র ছাত্রী সহ শিক্ষা সংস্কৃতি মহলে বিশেষ উদ্দীপনার সঞ্চার হয়েছে। 'ভাষা শিখবো, বই লিখবো' এই স্লোগানকে সামনে রেখে' সপ্তম পূর্ব বর্ধমান জেলা বইমেলার শুভারম্ভ হলো। মেলা চলবে ১৭ই জানুয়ারি পর্যন্ত। বুধবার জামালপুরের নেতাজি অ্যাথলেটিক ক্লাব ময়দানে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে মেলার উদ্বোধন করেন রাজ্যের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। 

উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রীয় পুরস্কার প্রাপ্ত শিশু সাহিত্যিক সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়, পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সভাধিপতি শ্যামা প্রসন্ন লোহার, সহ সভাধিপতি গার্গী নাহা, সাংসদ সুনীল মন্ডল, অতিরিক্ত জেলাসসক প্রসেনজিৎ রায়, জনশিক্ষা দপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর সাথী রায়, এসডিও সদর দক্ষিণ কৃষ্ণেন্দু কুমার মন্ডল, বিধায়ক অলক কুমার মাঝি, জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি আধিকারিক রাম শঙ্কর মন্ডল, পুর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ শান্তনু কোনার, জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ মেহেমুদ খান, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি পূর্ণিমা মালিক, সহ সভাপতি ভূতনাথ মালিক, জামালপুর ব্লকের সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক পার্থ সারথি দে, জামালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ নিতু সিং সহ অন্যান্যরা।

এদিন উদ্বোধনী বক্তব্য রাখতে গিয়ে মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জেলার বইমেলা অথচ জেলা শাসক অনুপস্থিত। তাঁর থাকাটা অবশ্যই দরকার ছিল। তিনিই জেলার প্রধান কিন্তু জেলার বইমেলায় তাকে মঞ্চে দেখতে পেলাম না। সরকারি অনুষ্ঠানে জেলা শাসক থাকাটা অতি গুরুত্বপূর্ণ।

গ্রন্থআগআর মন্ত্রী আরও বলেন, বই ছাড়া মানুষ বাঁচতে পারে না। ছেলে মেয়েদের এমন ভাবে মানুষ করুন যাতে তারা বই লিখতে পারে। বই আমাদের সম্পদ। বই বাদ দিয়ে বাঁচা অসম্ভব। বই বিবেককে খুলে দেয়। লেখা পড়ার কোনো বিকল্প নেই। আমরা মডেল লাইব্রেরী করছি যাতে বই আপনাদের কাছে অতি সহজে পৌঁছে যায়। ভাষা শিখবো, বই লিখবো এটা আমাদের সকলের অঙ্গীকার হোক।

সমগ্র অনুষ্ঠানটি সুন্দর ভাবে সঞ্চালনা করেন সুদীপা সরকার।

বৃহস্পতিবার বই মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আগে একটি বর্ণাঢ্য পদযাত্রা জামালপুর এলাকা পরিক্রমা করে। লোকশিল্পীদের অংশ গ্রহণে বই মেলার বার্তা পৌঁছে যায় গ্রামে গ্রামে। পদযাত্রায় পা মেলান সাংসদ সুনীল কুমার মন্ডল, বিধায়ক অলক কুমার মাঝি, পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ মেহেমুদ খান, বিডিও পার্থ সারথি দে, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি পূর্ণিমা মালিক সহ এলাকার বিশিষ্টজন।