Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

TMC General Meeting তৃণমূল কংগ্রেসের পূর্ব বর্ধমান জেলার সাধারণ সভায় সরব মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ


 

TMC General Meeting

তৃণমূল কংগ্রেসের পূর্ব বর্ধমান জেলার সাধারণ সভায় সরব মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ


Sangbad Prabhati, 18 December 2023

ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : সামনে লোকসভা নির্বাচন, তার আগে দলীয় সমস্ত কর্মসূচি সঠিকভাবে রূপায়ণের নির্দেশ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের উচ্চ নেতৃত্ব। রবিবার তৃণমূল কংগ্রেসের পূর্ব বর্ধমান জেলার সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হলো কাটোয়া সংহতি মঞ্চে। তৃণমূল কংগ্রেসের পূর্ব বর্ধমান জেলার সভাপতি তথা পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার সদস্য রবীন্দ্রনাথ চ্যাটার্জীর সভাপতিত্বে ১৭ ডিসেম্বরের সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সভাধিপতি শ্যামা প্রসন্ন লোহার, সহ-সভাধিপতি গার্গী নাহা, রায়নার বিধায়ক তথা জেলা পরিষদের প্রাক্তন সভাধিপতি শম্পা ধাড়া, প্রাক্তন সহ-সভাধিপতি দেবু টুডু, তৃণমূল কংগ্রেসের বর্ষিয়ান নেতা তথা প্রাক্তন বিধায়ক বনমালী হাজরা সহ জেলার অন্যান্য বিধায়ক ও নেতৃত্ব। বার্ষিক সভায় জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষরা, জেলার সব ব্লকের সভাপতি, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি, গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান এবং দলের বিভিন্ন শাখা সংগঠনের পদাধিকারীরা উপস্থিত ছিলেন। 

মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, সরকারি বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ দ্রুত শেষ করতে হবে। ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে এমনই বার্তা দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি দলীয় কর্মসূচি পালনে সকলকে সচেষ্ট থাকতে হবে। একই সঙ্গে দলের আভ্যন্তরীণ ত্রুটি বিচ্যুতি নিয়েও আলোচনা হয়। 

তবে আগামী লোকসভা নির্বাচনে জেলার দুটি আসনই যাতে তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে আসে তার জন্য সকলকে একযোগে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। ক্ষোভ বিক্ষোভ ভুলে যান, দল ক্ষমতায় থাকলে আপনার আমার গুরুত্ব থাকবে। তাই সাধারণ মানুষের পাশে থাকুন, অভাব অভিযোগ শুনে সমাধানের ব্যবস্থা করুন। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যবাসীর জন্য বহু প্রকল্প ও পরিষেবা চালু করেছেন। রাজ্য সরকারের জনমুখী প্রকল্পগুলোর সুবিধা যাতে সকলেই পেতে পারেন সেই বিষয়টিও দেখতে হবে।