চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

Maa Carnival মা এর কার্নিভাল বর্ধমানে প্রথম লাল্টু স্মৃতি সংঘ, মহরমে প্রথম মেহেদী বাগান, বিশদ জানতে ক্লিক করুন


 

Maa Carnival 


মা এর কার্নিভাল বর্ধমানে প্রথম লাল্টু স্মৃতি সংঘ, মহরমে প্রথম মেহেদী বাগান, বিশদ জানতে ক্লিক করুন 




Jagannath Bhoumick
Sangbad Prabhati, 2 December 2023

জগন্নাথ ভৌমিক, বর্ধমান : আজ সংস্কৃতি লোকমঞ্চে মা কার্ণিভালের সম্মান প্রদান অনুষ্ঠান হয়।

"রাখতে জানে, মা - এর মান।
সংস্কৃতির পীঠস্থান, কার্ণিভালে বিশ্বমান"। 

এই স্লোগানকে সামনে রেখে বর্ধমানে মা কার্নিভালের শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণকারী পুজো কমিটিগুলোকে সম্মানিত করা হয়। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন, মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, সহ জেলাশাসক পূর্ণেন্দু কুমার মাজি, সহকারি সভাধিপতি গার্গী নাহা, বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়, খোকন দাস, সাংসদ সুনীল কুমার মন্ডল, অতিরিক্ত জেলা শাসক অমিয় কুমার দাস, বাজেপ্রতাপপুর রামকৃষ্ণ আশ্রমের সম্পাদক স্বামী অজ্ঞেয়ানন্দজী মহারাজ সহ অন্যান্য মহারাজ ডিএসপি ট্রাফিক রাকেশ চৌধুরী, জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি আধিকারিক রাম শংকর মন্ডল এবং অন্যান্যরা। 

কার্ণিভালের শোভাযাত্রায় সুশৃঙ্খল শিল্পকলা সাংস্কৃতিক পরিবেশনা সহ সামগ্রিক উপস্থাপনার জন্য প্রথম পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে লাল্টু স্মৃতি সংঘ কে। লালটু স্মৃতি সংঘের কর্মকর্তাদের হাতে চার লক্ষ টাকার চেক এবং সুন্দর ট্রফি তুলে দেওয়া হয়। যুগ্মভাবে দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে বর্ধমানের সবুজ সংঘ এবং আলমগঞ্জ বারোয়ারি। 

এদের প্রত্যেকের হাতে তিন লক্ষ টাকার একটি করে চেক এবং ট্রফি প্রদান করা হয়। তৃতীয় স্থানাধিকারীদের ন্যাচারাল সিটি পুজো কমিটিকে দু'লক্ষ টাকার চেক ও ট্রফি তুলে দেওয়া হয়। কমিটির পক্ষে খুদে সদস্যরা পুরস্কার গ্রহণ করে। চতুর্থ হয়েছে লক্ষ্মীপুর মাঠ সর্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটি। পঞ্চম হয়েছে তেলিপুকুর সুকান্ত স্মৃতি সংঘ। চতুর্থ থেকে দশম স্থানাধিকারীদের প্রতিটি কে এক লক্ষ টাকার চেক ও ট্রফি প্রদান করা হয়। এবছর মোট ২৭ পুজো কমিটি কার্ণিভালের শোভাযাত্রায় অংশ গ্রহণ করেছিল। এদিনের অনুষ্ঠানে প্রতিটি পুজো কমিটিকেই আর্থিক পুরস্কার ও ট্রফি দিয়ে সম্মানিত করা হয়।

এছাড়া মা কার্নিভাল এর অনুষ্ঠানে বর্ধমানে সেরা মহরম কমিটি গুলোকেও পুরস্কৃত করা হয়েছে। এবছর প্রথম হয়েছে মেহেদী বাগান মহরম কমিটি তাদেরকে দেড় লক্ষ টাকার চেক এবং ট্রফি প্রদান করা হয়। দ্বিতীয় হয়েছে ভেড়িখানা মহরম কমিটি তাদের হাতে এক লক্ষ টাকার চেক ও ট্রফি প্রদান করা হয়। তৃতীয় হয়েছে খাগড়াগড় মহরম কমিটি তাদের হাতে ৫০ হাজার টাকা চেক ট্রফি প্রদান করা হয়েছে।

এদিনের অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে সংস্কৃতি লোকমঞ্চ মুখরিত করে তোলেন রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের মন্ত্রী তথা বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী ইন্দ্রনীল সেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলের বাড়তি পাওনা মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর যাত্রার সংলাপ পরিবেশনা। এছাড়াও সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে সকলকে আনন্দ দিয়েছেন জি-বাংলা খ্যাত সঙ্গীত শিল্পী গার্গী চক্রবর্তী ও জয় শাশ্বত ভট্টাচার্য। 

সমগ্র অনুষ্ঠানটি সুন্দর ভাবে উপস্থাপনা করেন বিশিষ্ট বাচিক শিল্পী তথা আকাশবাণীর সঞ্চালক কল্লোল কোনার।