Scrooling

ঘূর্ণিঝড় রিমাল : পূর্ব বর্ধমানে ৪টি ব্লক ক্ষতিগ্রস্ত, মৃত ২ # চুরুলিয়ায় ৫ দিন ব্যাপী নজরুল স্মরণে বর্ণময় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও মেলা # নন্দীগ্রামে বিজেপি সমর্থক খুনে রিপোর্ট চাইলো কমিশন # ১৮ তম লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল জানা যাবে ৪ জুন

Vidyasagar birthday celebration জন্মদিনে বিদ্যাসাগরের আবক্ষ মূর্তি স্থাপিত হলো ডি এন দাস উচ্চ বিদ্যালয়ে


 

Vidyasagar birthday celebration 


জন্মদিনে বিদ্যাসাগরের আবক্ষ মূর্তি স্থাপিত হলো ডি এন দাস উচ্চ বিদ্যালয়ে



Sangbad Prabhati, 26 September 2023

ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : বিদ্যাসাগরের ২০৪তম জন্ম জয়ন্তীতে আজ কাঞ্চননগর দীননাথ দাস উচ্চ বিদ্যালয়ে তাঁর একটি আবক্ষ মূর্তি প্রতিষ্ঠিত হয়। আবরণ উন্মোচন করেন বিধায়ক খোকন দাস। উপস্থিত ছিলেন বর্ধমান পৌরসভার পৌরপতি পরেশচন্দ্র সরকার, বিদ্যালয়ের সভাপতি তথা স্থানীয় কাউন্সিলর মানিক দাস, শিক্ষাবিদ তপঃপ্রকাশ ভট্টাচার্য, মহিলা থানার আইসি বনানী রায়, প্রধানশিক্ষক ড. সুভাষচন্দ্র দত্ত, বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষকরা এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিধায়ক খোকন দাস বলেন, বিদ্যাসাগরের দৃঢ়চেতা ব্যক্তিত্ব শুধু শিক্ষা নয়, জীবনের প্রতিটি অঙ্গনে অনুসরণীয়। বিধবাবিবাহের মতো সিদ্ধান্তগুলির রূপায়ণ পরিবর্তনশীল সমাজে আমাদের সদা সতর্ক থাকতে উদ্বুদ্ধ করে যাবে।

পৌরপতি তথা প্রাক্তন শিক্ষক পরেশ চন্দ্র সরকার বলেন, শুধু উপাধিতে পরিচিত এমন মানুষ খুব কম আছেন। বিদ্যাসাগর এই উপাধি যেন তাঁর নামে পর্যবসিত হয়েছে। আজীবন অক্লান্ত মানবসেবী এই বরেণ্য পুরুষের মূর্তি প্রতিষ্ঠা করে কাঞ্চননগর দীননাথ দাস উচ্চ বিদ্যালয় যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করেছে।

শিক্ষাবিদ তপঃপ্রকাশ ভট্টাচার্য বলেন, বিদ্যাসাগর যে সুচিন্তিত অবস্থান নিতেন, তার থেকে বিচ্যুত হতেন না। এমনকি প্রথম প্রথম বহু মানুষকে পাশে না পেলেও পরে তাদের বোঝাতে সক্ষম হয়েছিলেন যে পরিবর্তন তাদের ভালোর জন্যেই নেওয়া। এত বড় নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতাসম্পন্ন মানুষকে যুগপুরুষ বলা যায়। তাই আজ থেকে হাজার বছর পরেও তাঁর প্রাসঙ্গিকতা থেকে যাবে।

স্থানীয় কাউন্সিলর মানিক দাস বলেন, বড় বড় সিদ্ধান্ত যেভাবে বিদ্যাসাগর নিয়েছেন তা আজকের নীতিনির্ধারকদের কাছে শিক্ষণীয়। ভাল কিছু করতে গেলে আজ বিভিন্ন স্তরে বাধা আমাদের একটা ভাবনা। বিদ্যাসাগর অনেক এরকম বাধা অনায়াসে অতিক্রম করেছেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ড. সুভাষচন্দ্র দত্ত বলেন, প্রাতঃস্মরণীয় এই মহামনীষীকে সম্মান জানাতে পেরে তাঁরা গর্বিত।

বর্ধমান মহিলা থানার আইসি বনানী রায় বলেন, বিদ্যাসাগর সেই গোত্রের পুরুষ ছিলেন যিনি অন্যকে উপদেশ দেওয়ার আগে নিজে করে দেখানোর পক্ষপাতী ছিলেন। তাই তিনি আমাদের পূজনীয়।

অনুষ্ঠানে গান গেয়ে শোনান বিবেকানন্দ বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষিকা কেতকী বন্দ্যোপাধ্যায়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শিক্ষক সামিম মণ্ডল। ছাত্রছাত্রীদের আবৃত্তি নৃত্য সঙ্গীত অনুষ্ঠানে ছিল বাড়তি পাওনা।