Scrooling

কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন আউসগ্রামের বিউটি বেগম # নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

দু'একটি বিক্ষিপ্ত অভিযোগ ছাড়া জামালপুরে পঞ্চায়েত ভোট নির্বিঘ্নে


 

দু'একটি বিক্ষিপ্ত অভিযোগ ছাড়া জামালপুরে পঞ্চায়েত ভোট নির্বিঘ্নে



Atanu Hazra
Sangbad Prabhati, 8 July 2023

অতনু হাজরা, জামালপুর : বিক্ষিপ্ত দু'একটি অভিযোগ ছাড়া নির্বিঘ্নেই মিটলো জামালপুরে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচন। সকাল থেকেই বুথে বুথে ভোট দেবার জন্য লম্বা লাইন পড়ে যায়। বিভিন্ন বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী ছিল। যদিও দুপুর দুটো পর্যন্ত খুব ধীর গতিতেই চলছিল ভোট। 

দু একটি ঘটনা ছাড়া সেরকম কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। নিজের নিজের বুথে দেখা যায় সব প্রার্থীদের। প্রায় প্রতিটি বুথেই সব দলের পোলিং এজেন্ট উপস্থিত ছিলেন। সারাদিন সারা ব্লক ছুটে বেড়িয়েছেন শাসক দলের বিধায়ক অলক কুমার মাঝি।

 সকালে নিজের বুথে ভোট দিয়ে তিনি জামালপুরে আসেন। কখনো দলের কর্মীদের সাথে বসে বুথ স্লিপ বিলি করেছেন, কখনো তাদের সাথে বসে টিফিন খেয়েছেন। সর্বদা কর্মীদের মনোবল বাড়িয়ে গেছেন। তৃণমূল কংগ্রেসের জামালপুর ব্লক সভাপতি মেহেমুদ খান ও বিদায়ী পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ভূতনাথ মালিক দুজনেই পঞ্চায়েত সমিতিতে দাঁড়িয়েছেন। তাঁরাও নিজদের বুথ গুলি ঘুরে দেখেন। সাহাবুদ্দিন মন্ডল কেও নিজের বুথে দেখা যায়। তিনি জামালপুর ১ অঞ্চলের সেলিমাবাদ গ্রাম থেকে পঞ্চায়েতে পুনরায় দাঁড়িয়েছেন। কিন্তু কয়েকটি জায়গায় বিক্ষিপ্ত ঘটনা ঘটে। ১৩৪ নম্বর বুথ রামকৃষ্ণপুরে সিপিআইএম এর এজেন্টকে বুথ বের করে দেওয়া ও ছাপ্পা ভোট দেবার অভিযোগ করেন সিপিআইএম এর প্রাক্তন বিধায়ক সমর হাজরা। 

মেহেমুদ খান জানান, এরকম কোনও ঘটনা তাঁর জানা নেই। আসলে ওরা এজেন্ট বসাতে না পেরে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। জামালপুর ২ অঞ্চলের ১৫২ নং বুথে ডাঙ্গা ফরিদপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাপ্পা ভোটের খবর করতে গেলে তৃণমূল কর্মীদের হাতে আক্রান্ত হন সাংবাদিক মহম্মদ খান ওরফে সানি বলে অভিযোগ। সাংবাদিক আক্রান্তের ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় সাংবাদিক মহলে। দোষীদের বিরুদ্ধে শাস্তির দাবি জানায় তারা। শুধু তাই নয় ছাপ্পা দেবার অভিযোগে ওই গ্রামের বাসিন্দারা সমস্ত রাজনৈতিক দলের ফ্ল্যাগ পুড়িয়ে দিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। পরে জামালপুর থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। মোটের উপর জামালপুরে নির্বিঘ্নেই মিটেছে ভোট।