Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

Amrit Bharat Station সারা দেশে ১২৭৫ টি রেল স্টেশনকে অত্যাধুনিক ভাবে গড়ে তোলা হবে, বাংলায় কোন কোন স্টেশন ? এক ঝলকে দেখে নিন


 

Amrit Bharat Station  

সারা দেশে ১২৭৫ টি রেল স্টেশনকে অত্যাধুনিক ভাবে গড়ে তোলা হবে, বাংলায় কোন কোন স্টেশন ? এক ঝলকে দেখে নিন 


Jagannath Bhoumick
Sangbad Prabhati, 24 April 2023

জগন্নাথ ভৌমিক, কলকাতা : রেল পরিষেবাকে আরো উন্নত করতে গুরুত্বপূর্ন পদক্ষেপ নিয়েছে ভারতীয় রেল। বিমান বন্দরের মতোই ঝাঁ চকচকে হবে ভারতের বেশ কিছু রেল স্টেশন। অমৃত ভারত স্টেশন প্রকল্পের কথা হয়তো অনেকেই শুনেছেন। এই প্রকল্পে দেশের মোট ১ হাজার ২৭৫ টি স্টেশনকে সাজিয়ে নতুন করে তৈরীর কাজ শুরু হয়েছে। এই প্রকল্পে পশ্চিমবঙ্গে ৯৪ টি রেল স্টেশনকে সাজিয়ে তোলা হবে।

প্রথম পর্যায়ে দেশ জুড়ে যে সমস্ত স্টেশনগুলো নতুন করে সাজানো হবে তার মধ্যে বাংলার হাওড়া, কলকাতা, ব্যান্ডেল ও আসানসোল এই চার স্টেশন রয়েছে। যদিও প্রথম পর্যায়ের আধুনিকরণের তালিকায় শিয়ালদহ স্টেশনের নামও রয়েছে, কিন্তু আপাতত ওই চারটি স্টেশনের ওপরেই বেশি জোর দেওয়া হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে রেল স্টেশনগুলো আধুনিকীকরণের তালিকায় প্রথমেই রয়েছে বর্ধমান জংশনের নাম। তবে গুরুত্ব অনুযায়ী প্রথম পর্যায়ে দেশে যে সমস্ত স্টেশনগুলো আধুনিকীকরণের কাজ হবে সেখানে হাওড়া, কলকাতা, ব্যান্ডেল ও আসানসোল স্টেশনের নাম রয়েছে। ধীরে ধীরে অমৃত ভারত স্টেশন প্রকল্পের তালিকায় থাকা ১২৭৫ টি স্টেশনকে অত্যাধুনিক স্টেশন হিসেবে গড়ে তোলা হবে।



পশ্চিমবঙ্গে যে সমস্ত স্টেশনগুলো আধুনিকীকরণের তালিকায় রয়েছে এক ঝলকে দেখে নিন --

বর্ধমান 
রামপুরহাট
বোলপুর শান্তিনিকেতন
নবদ্বীপ ধাম
খাগড়াঘাট 
কাটোয়া
তারকেশ্বর
শেওড়াফুলি
বালি 
আজিমগঞ্জ
ডানকুনি
সাঁইথিয়া
চন্দননগর
অম্বিকা কালনা
শিয়ালদহ
কৃষ্ণনগর
কল্যাণী 
শান্তিপুর
ক্যানিং
চাঁদপাড়া
সোনারপুর
বহরমপুর কোর্ট 
বেথুয়াডহরী
বনগাঁ
কল্যাণী ঘোষপাড়া
নৈহাটী
ব্যারাকপুর
দমদম জংশন
গেদে
অন্ডাল
সীতারামপুর
মালদা টাউন 
নিউ ফারাক্কা
ধূলিয়ান গঙ্গা 
জঙ্গীপুর রোড
নিউ আলিপুরদুয়ার 
ডালগাঁও
হাঁসিমারা
দিনহাটা
নিউ মাল জংশন
জলপাইগুড়ি রোড 
ধূপগুড়ি
ফালাকাটা 
কামাক্ষাগুড়ি
বান্নাগুড়ি
মালদা কোর্ট
কালিয়াগঞ্জ
হলদিবাড়ি
ভালুকারোড
আলুয়াবাড়ি 
জলপাইগুড়ি
ডালখোলা
হরিশচন্দ্রপুর 
শামসী
পুরুলিয়া
বাঁকুড়া আদ্রা
বিষ্ণুপুর
বরাভূম
বার্নপুর
চন্দ্রকোণা রোড
গড়বেতা
আনাড়া
জয়চাঁদি পাহাড়
শালবনি
মধুকুন্ডা
আন্দুল
বেলদা
দীঘা
হুলদীয়া
হিজলী
ঝাড়গ্রাম 
খড়গপুর
মেচেদা
মেদিনীপুর 
পাঁশকুড়া
তমলুক
ঝালিদা
সুইসা
তুলিন
বাগনান
উলবেড়িয়া হাট
গোসীগাঁও
শালীমার
হাওড়া
আলিপুরদুয়ার জংশন
নিউ কুচবিহার
নিউ জলপাইগুড়ি
আসানসোল
ব্যান্ডেল
হাওড়া
কলকাতা টার্মিনাল
পান্ডবেশ্বর
সিউড়ি
পানাগড়



অমৃত ভারত স্টেশন প্রকল্পের মুখ্য উদ্দেশ্য গুলি হল 

এই প্রকল্পে রেল স্টেশনে থাকা বিভিন্ন শ্রেণীর যাত্রী প্রতীক্ষালয়গুলিকে একত্রিত করে অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন প্রতীক্ষালয় গড়ে তোলা হবে, যেখানে ভালো মানের ক্যাফেটেরিয়া ও খুচরো পণ্যের বিপণি থাকবে।

সমস্ত স্টেশনে উঁচু ধরনের প্ল্যাটফর্ম নির্মিত হবে যার উচ্চতা ৭৬০ থেকে ৮১০ মিলিমিটার করার উদ্যোগ নেওয়া হবে।

এই প্রকল্পের আওতায় স্টেশনমুখী রাস্তাগুলিকে চওড়া করার পাশাপাশি রাস্তার ধারে থাকা অবৈধ নির্মাণ সরিয়ে দেওয়া হবে। যাত্রীরা যাতে সহজেই স্টেশনে আসতে পারেন এবং স্টেশন থেকে বের হতে পারেন তা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন জায়গায় দিক নির্দেশনার ব্যবস্থা করা হবে।

সংশ্লিষ্ট রাস্তাগুলিতে পথচারীদের বিশেষ ব্যবস্থার পাশাপাশি আলোর ব্যবস্থাও করা হবে।

স্টেশন চত্ত্বরে গাড়ি রাখার জন্য পার্কিং প্লেস গড়ে তোলা হবে।

রেল বোর্ড বিভিন্ন সময়ে ভিন্নভাবে সক্ষম যাত্রীদের সহায়তার জন্য যে নির্দেশাবলী প্রকাশ করে সেই অনুযায়ী স্টেশনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মহিলা এবং ভিন্নভাবে সক্ষম সহ সব ধরনের যাত্রীদের ব্যবহারোপযোগী শৌচাগার নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া এই প্রকল্পের অন্যতম লক্ষ্য। তহবিল অনুযায়ী দেশজুড়ে সুস্থায়ী এবং পরিবেশ বান্ধব রেল স্টেশন গড়ে তোলা হবে।