চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

Sports Complex in Renaissance রেনেসাঁ টাউনশিপে অত্যাধুনিক স্পোর্টস কমপ্লেক্স গড়তে উদ্যোগী রাহুল টোডি


 

Sports Complex in Renaissance 

রেনেসাঁ টাউনশিপে অত্যাধুনিক স্পোর্টস কমপ্লেক্স গড়তে উদ্যোগী রাহুল টোডি 


জগন্নাথ ভৌমিক, বর্ধমান : শহর বর্ধমানের অত্যাধুনিক উপনগরী রেনেসাঁ। রেনেসাঁ মানেই নবজন্ম। খোল নলচে পাল্টে ফেলার গল্প। পুরোন ধ্যানধারণা বদলে নতুন করে গড়ে তোলা। আর সেই গল্পই বাস্তবে রূপ দিতে এগিয়ে এসেছেন শ্রাচী গ্রুপের কর্ণধার রাহুল টোডি। বর্ধমান শহরের উপকণ্ঠে ২৫৪ একরে এলাকা জুড়ে গড়ে তুলেছেন স্বপ্নশহর রেনেসাঁ। কি নেই এখানে ? স্কুল, বাজার, হাসপাতাল এক কথায় সুষ্ঠু ভাবে জীবন যাপনে যাযা দরকার সবকিছুর ঠিকানা রেনেসাঁ। এবার আরও একধাপ এগিতে চাইছে রেনেসাঁ। শ্রাচী গ্রুপের পাবলিক রিলেশন অফিসার রজত শুভ্র মুখোটি-কে পাশে নিয়ে তেমনই এক ঘোষণা করলেন রাহুল টোডি। ২৩ ডিসেম্বর রেনেসাঁ টাউনশিপে হইচই ঘোষণা শীর্ষক এক অনুষ্ঠানের ফাঁকে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন শ্রাচী গ্রুপের কর্ণধার রাহুল টোডি। 

তিনি জানান এই রেনেসাঁ টাউনশিপে ৭/৮ একর জায়গা জুড়ে রেনেসাঁ স্পোর্টস কমপ্লেক্স গড়ে তুলতে উদ্যোগী হয়েছেন। রাজ্য তথা দেশের খ্যাতনামা ক্রীড়াবিদরা আসবেন প্রশিক্ষণ দিতে। ফুটবল, ক্রিকেট, ব্যাডমিন্টন ও টেনিস এই চারটি বিষয় নিয়ে শুরু হবে। রেনেসাঁ টাউনশিপের বাসিন্দাদের ছেলে মেয়েরা আগে সুযোগ পাবে। খেলাধুলায় কৃতি ছেলে মেয়েদের জন্য স্কলারশিপের ব্যাবস্থাও থাকবে। সব মিলিয়ে খেলাধুলার মাধ্যমে স্বপ্নপূরণের সুযোগ। এপ্রসঙ্গে রজত শুভ্র মুখোটি বলেন, কে বলতে পারে রেনেসাঁ স্পোর্টস কমপ্লেক্স এর হাত ধরেই আগামী দিনে উঠে আসতে পারে শৈলেন মান্না কিম্বা সৌরভ গাঙ্গুলীর মতো খেলোয়াড়। 

রেনেসাঁ টাউনশিপের বর্তমান বাসিন্দারাও যথেষ্ট আশাবাদী। তাদের কথায় রাহুল টোডি গল্প শোনান না বাস্তবে করেও দেখান। এই কথার রেশ ধরেই রজত শুভ্র মুখোটি বলেন, রাজ্যের নির্মাণ শিল্পে সত্যি কিছু করে দেখিয়েছেন শ্রাচী'র কর্ণধার রাহুল টোডি। এনেছেন এক নবজাগরন। তাইতো নামকরনের স্বার্থকতার এক আদর্শ দৃষ্টান্ত হয়ে উঠেছে বর্ধমানের রেনেসাঁ টাউনশিপ। কলকাতা থেকে মাত্র ৯০ কিমি দূরের এক স্বপ্ননগরী। ছোট্ট একটা শহর নাম রেনেসাঁ। নজরকাড়া বাংলো থেকে টুইন হাউস অথবা দু তিন কামড়ার ফ্ল্যাট। মধ্যবিত্ত ও বিলাসবহুল জীবনের সহাবস্থান। আকাশছোঁয়া ফ্লাট বাড়ির বারান্দায় বসে মেঘের সঙ্গে গল্প করার হাতছানি। এককথায় আধুনিক দিনযাপনের রেনেসাঁ। 

এই টাউনশিপে রয়েছে "সলিস"। যেখানে রূপকথার গল্পের মতো মেঘ ঢুকে পড়ছে আপনার ঘরে। একফালি সূর্যের আলোর জন্য আপনাকে আর হাপিত্তেশ করতে হচ্ছেনা। এতই হাওয়া যে ভালবেসে নাম দিতেই পারেন হওয়ামহল। মেঘেদের প্রতিবেশী হয়ে থাকার সুযোগ পাছেন এখানে।

অন্যদিকে রয়েছে "এলিট হোমস"। বিলাশবহুল, ছিমছাম, শৌখিন জীবনযাত্রা মানেই শ্রাচীর এলিট হোমস। তিন দিক খোলা সব এপার্টমেন্ট। পাখির ডাকে ঘুম ভাঙ্গবে আপনার। হওয়ায় ঋতু বদলের স্বাদ নিতে পারবেন মন খুলে।

এছাড়া রয়েছে "স্ট্র্যান্ড"। যেখানে জলের ধারে বাড়ি। জানলা খুল্লেই মন ভালো করা সব অনুভূতি ভিড় করে আসবে। জলের ওপর কুয়াশার ছাঁদর বা টাপুর টুপূড় বৃষ্টির শব্দ আপনাকে নিয়ে যাবে স্বপ্নের জগতে। শেষ কবে মাছরাঙ্গা পাখি দেখেছিলেন বলুন তো বা পানকৌড়ি। বিলাশবহুল জীবন আর প্রকৃতির সব রূপ রস মিলে মিশে একাকার স্ট্র্যাণ্ডে।

এছাড়াও রয়েছে "বাংলো"। বাংলোর সঙ্গে বাঙালির কেমন যেন একটা আত্মার যোগ। সাহিত্যে বাংলো, স্বপ্নে বাংলো, ঘুরতে গেলে বাংলো, খাবারের মেনুতে বাংলো। তাই টাউনশিপে বাংলো থাকবে না তা আবার হয় নাকি। টাউনশিপে তাই ভিন্ন ধরনের বাংলো রয়েছে রেনেসাঁ টাউনশিপে। আর তাতেই পেয়েছে অভূতপূর্ব সারা। এবার তাই নিয়ে আসছে সব স্বপ্নের আল্টিমেট ডেসটিনেশন মাগনোলিয়া বাংলো। ভাবুন তো প্রকৃতির সব রঙ, সব আমেজ এখানে আপনার ফ্যামিলি মেম্বার। লাইফস্টাইল বাংলোর সব পার্থিব সুখ মন ভরে উপভোগ করতে পারবেন মাগনোলিয়ার ডুপ্লেক্স বা ত্রিপ্লেক্স বাংলোতে।

রেনেসাঁ টাউনশিপের ভেতরেই আছে শেমফোর্ড ফিউচারিস্টিক স্কুল, নারায়না স্কুল, BIMS হসপিটাল, বৃদ্ধি শপিং কমপ্লেক্স, সিঙ্কলেয়ার্স ক্লাব।

সব শেষে দুর্দান্ত যোগাযোগ ব্যবস্থা। রেনেসাঁ টাউনশিপ থেকে দু'পা হাঁটলেই ন্যাশনাল হাইওয়ে। হাতের কাছে বাস স্ট্যান্ড, দশ মিনিট দূরেই স্টেশন। অন্ডাল এয়ারপোর্ট যেতে সময় লাগবে মাত্র ৭৫ মিনিট। তাই চাইলেই রেনেসাঁ টাউনশিপ স্বপ্নের শহর হয়ে উঠতে পারে আপনার সুখের ঠিকানা।

রেনেসাঁয় বিগত দিনে যারা সলিস, এলিট হোমস, বাংলো বুক করেছেন আজকের অনুষ্ঠান মঞ্চে থেকে তাদের মোট ১২০ জনকে পুরস্কৃত করা হয়। ৬ জনের হাতে স্কুটি টু-হুইলারের চাবি তুলে দেওয়া হয়। এছাড়া ৫ জনকে গোল্ড কয়েন, ৫ জনকে আই ফোন এলেভেন এবং ২৩ জনকে ল্যাপটপ দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়। এই উদ্যোগে সকলেই খুশি। 

এদিনের অনুষ্ঠানে শ্রাচী গ্রুপের এম ডি রাহুল টোডি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পিআরও রজত শুভ্র মুখোটি, জেনারেল ম্যানেজার অপারেশন ওমর কৈসের শরিফ, জেনারেল ম্যানেজার সেলস কৃষ্ণেন্দু মুখার্জী, চিফ মার্কেটিং অফিসার পুনম থারর, জেনারেল ম্যানেজার প্রজেক্ট চন্দ্রচূড় চ্যাটার্জী, ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার অপারেশন এ্যান্ড অ্যাডমিনিস্ট্রেশন মলয় ঘোষ দস্তিদার, ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার সেলস দেবাঞ্জন নন্দী, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট কৌশিক ভট্টাচার্য প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায় ছিলেন মৌসম ব্যানার্জী।

Post a Comment

0 Comments