চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

Chittaranjan Locomotive works চিত্তরঞ্জন রেল কারখানা বাঁচাও এর ডাক দিয়ে মেধা পাটেকরের পথযাত্রা


 

Chittaranjan Locomotive works

চিত্তরঞ্জন রেল কারখানা বাঁচাও এর ডাক দিয়ে মেধা পাটেকরের পথযাত্রা


কাজল মিত্র, আসানসোল : বিদ্বেষ ছাড়ো, সংবিধান বাঁচাও। চিত্তরঞ্জন রেল কারখানা বাঁচাতে এবং আসানসোল জামতোড়া শিল্পাঞ্চলকে বাঁচাতে বৃহস্পতিবার সিএল ডাবলু সংগ্রামী শ্রমিক ইউনিয়নের ডাকে সমাজসেবীকা তথা জননেত্রী মেধা পাটেকরের উপস্থিততে পশ্চিম বর্ধমান জেলার বারাবনি বিধানসভার অন্তর্গত রূপনারায়ানপুরে বাস স্ট্যান্ডে একটি জনসভা হয়। তারপর সভাস্থল থেকে শুরু করে চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানার জিএম অফিস পর্যন্ত পথযাত্রা করার উদ্দেশ্যে রওনা দেন কিন্তু চিত্তরঞ্জন ৩ নম্বর গেটে রেল প্রশাসন দ্বারা ব্যারিকেড লাগিয়ে মিছিলটি প্রবেশ করতে দেওয়া হয় না।

রাগে ক্ষোভে ফেটে পড়েন কর্মী সমর্থকরা ব্যারিকেড ভেঙে প্রবেশ করার চেষ্টা করা হয় কর্মী সমর্থকদের তরফে। কিন্তু বিশাল আরপিএফ বাহিনী তাদের আটকে ফেলে।অবশেষে রাস্তায় বসে পড়েন মেধা পাটেকর সহ কর্মী সমর্থকরা। শেষ পর্যন্ত রেল কর্তৃপক্ষ ৫ জনকে প্রবেশ করতে দেন। সেখানে গিয়ে তারা জিএম এর কাছে তাদের দাবির কথা জানান ও তার হাতে স্মারকলিপি তুলে দেন।

তিনি জানান, রেল কর্তৃপক্ষ ও কেন্দ্র সরকার ভয় পেয়েছে তাই তাদের প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। কেন্দ্র ও রেল যতই ক্ষমতা দেখাক কিন্তু রেল কারখানাকে বেসরকারিকরণ করতে দেওয়া যাবে না। তিনি আরো বলেন কেন্দ্র সরকার গরীব কৃষক, শ্রমিকদের শোষণ করছে। ব্যাঙ্কের ঋণের জন্য কৃষক আত্মহত্যা করছে আর কোটি কোটি টাকা নিয়ে বড় ব্যবসায়ীরা দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে। দিনের পর দিন কেন্দ্রীয় সরকার দ্বারা পরিচালিত কারখানা আদানি আম্বানির কাছে বিক্রি করে চলেছে সেটা সমগ্র বিশ্বের মানুষ দেখছে।

Post a Comment

0 Comments