চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

নিবিড় জনসংযোগে "চলো গ্রামে যাই" কর্মসূচিতে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি


 

নিবিড় জনসংযোগে "চলো গ্রামে যাই" কর্মসূচিতে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি


অতনু হাজরা, জামালপুর : পশ্চিমবঙ্গ মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের চলো গ্রামে যাই কর্মসূচি শুরু হয়েছে। গত ১লা নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই কর্মসূচি চলবে আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। সারা রাজ্য জুড়ে মহিলা তৃণমূল কংগ্রেস নিবিড় জনসংযোগে প্রতিটি গ্রামের প্রতিটি পাড়ায় পাড়ায় বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে যাচ্ছেন এবং মানুষের সুবিধা অসুবিধা নিয়ে তাদের সাথে কথা বলছেন। আজ পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরে জামালপুর ২ নং পঞ্চায়েতের অন্তর্গত হাসপাতাল পাড়ায় মানুষের সুবিধা অসুবিধার কথা জানতে ও কথা বলতে যান ব্লক সভাপতি মেহেমুদ খান। সঙ্গে ছিলেন জামালপুর ব্লকের মহিলা সভানেত্রী মিঠু মাঝি, যাঁর নেতৃত্বে চলছে ব্লকের এই কর্মসূচি। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জামালপুর ২ অঞ্চলের নেতা মিঠু পাল, রাজশ্রী দাস, মিঠু প্রামাণিক, ঝর্না মালিক সহ অন্যান্যরা। ব্লক সভাপতি মেহেমুদ খান বলেন ব্লকের মহিলা নেত্রীর সঙ্গে ব্লকের বিভিন্ন অঞ্চলের মহিলা কর্মীরা বাড়ি বাড়ি ঘুরছেন মানুষের সুবিধা অসুবিধার কথা শুনছেন এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও করে দিচ্ছেন। 

ইতি মধ্যেই ব্লকের ১০ টি অঞ্চলে বাড়ি বাড়ি যাওয়া হয়েছে। আজ তিনি নিজে বেরিয়েছেন মানুষের সাথে কথা বলতে। তিনি আরো বলেন বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাঁরা ভালই সাড়া পাচ্ছেন। বেশিরভাগ মানুষই সরকারী বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন। কয়েকজন যাঁরা এখনো কিছু কিছু প্রকল্পের সুবিধা পাননি সেই পরিবার যাতে দ্রুত সেই পরিষেবা পায় সে বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন। তাঁরা সকলের উদ্দেশ্যে জানান, যাঁরা এখনো সরকারি যেকোনো প্রকল্পের সুবিধা পাননি তাঁরা যেন অবশ্যই দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পে গিয়ে সেই সুবিধা গ্রহণ করেন। কারণ সাধারণ মানুষের সুবিধার কথা ভেবেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এই ব্যবস্থা করেছেন।

Post a Comment

0 Comments