চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

বর্ধমান পৌর উৎসব অনুষ্ঠিত হবে ১৭ থেকে ২৫ ডিসেম্বর


 

বর্ধমান পৌর উৎসব অনুষ্ঠিত হবে ১৭ থেকে ২৫ ডিসেম্বর


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : বর্ধমান বাসীর প্রাণের উৎসব 'বর্ধমান পৌর উৎসব' এর দামামা বেজে গেল। আজ এক প্রস্তুতি সভার মাধ্যমে সেই বার্তায় দিলেন বর্ধমান পৌর উৎসব কমিটি। বর্ধমান পৌর উৎসব ২০২২ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৭ ডিসেম্বর থেকে ২৫ ডিসেম্বর। শুক্রবার বর্ধমান টাউন হলে আয়োজিত এক প্রস্তুতি সভায় নতুন উৎসব কমিটি ঘোষণা করা হয়। রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ-কে প্রধান পৃষ্ঠপোষক করে একটি কমিটি তৈরি করা হয়েছে। কমিটির সভাপতি হয়েছেন বর্ধমান পৌরসভার পৌরপতি পরেশ চন্দ্র সরকার। যুগ্ম সম্পাদক উপ-পৌরপ্রধান মৌসুমী দাস ও বর্ধমান সদর উত্তরের মহকুমা শাসক তীর্থঙ্কর বিশ্বাস। এছাড়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডঃ নিমাই চন্দ্র সাহা, বর্ধমান দক্ষিণের বিধায়ক খোকন দাস সহ প্রশাসনিক আধিকারিক থেকে কাউন্সিলররা উৎসব কমিটিতে রয়েছেন।

বিগত বছরের মতো এবারও বর্ধমান পৌর উৎসবে ক্রীড়া সংস্কৃতির পাশাপাশি বর্ধমান কে বিশেষভাবে তুলে ধরা হবে। এই উপলক্ষে একটি স্মরণিকা প্রকাশ করা হবে। পৌরপতি পরেশ চন্দ্র সরকার জানান এবছরের উৎসবের ট্যাগলাইন বর্ধমানের ললিত কলা বিষয়ে রাখা হবে। উৎসব উপলক্ষে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক প্রতিযোগিতার পাশাপাশি স্থানীয় এবং বহিরাগত শিল্পী সমন্বয়ে উৎসবকে বর্ণময় করে তোলা হবে। 

আজকের প্রস্তুতি সভায় বর্ধমানের পৌর প্রধান পরেশ চন্দ্র সরকারের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বর্ধমান দক্ষিণের বিধায়ক খোকন দাস, এসডিও তীর্থঙ্কর বিশ্বাস, বর্ধমান থানার আইসি সুখময় চক্রবর্তী, উপ পৌর প্রধান মৌসুমী দাস, কাউন্সিলর তথা যুব তৃণমূলের জেলা সভাপতি রাসবিহারী হালদার, তৃণমূল কংগ্রেসের বর্ধমান শহর সভাপতি তথা সমাজসেবী তন্ময় সিংহ রায় সহ বর্ধমান পৌরসভার এক ঝাঁক কাউন্সিলর এবং বর্ধমান শহরের বিশিষ্ট নাগরিকবৃন্দ।

বর্ধমানের বিধায়ক খোকন দাস জানান বর্ধমান পৌর উৎসবের মধ্য দিয়েই এবার শীতকালীন উৎসবের সূচনা হবে। বর্ধমান পৌর উৎসবের পরেই অনুষ্ঠিত হবে কৃষ্ণসায়র উৎসব, এরপর শিশু উৎসব, মাঘ উৎসব এবং কাঞ্চন উৎসব অনুষ্ঠিত হবে।

Post a Comment

0 Comments