চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

Cyclone Sitrang ঘুর্ণিঝড় সিতরাং নিয়ে সতর্কতা জারি

 


Cyclone Sitrang  

ঘুর্ণিঝড় সিতরাং নিয়ে সতর্কতা জারি 


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : আসন্ন ঘূর্ণিঝড় সিতরাং নিয়ে এবার সতর্কতা জারি করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০ অক্টোবর কলকাতার একটি কালীপুজোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ' যা শুনছি, যদি ঘূর্ণিঝড় হয়, আম্পানের থেকেও বেশি তীব্র হতে পারে। ২০০ কিলোমিটার বেগে হিট করতে পারে। দিল্লি থেকে আমাদের কাছে এই নিয়ে জানতে চেয়ে ফোন এসেছিল। আমরা কন্ট্রোল রুম থেকে সব সব ব্যবস্থা করেছি।' 

এদিকে রাজ্য সচিবালয় নবান্নের তরফে জারি করা হয়েছে নির্দেশিকা। তাতে মৎস্যজীবীদের গভীর সমুদ্রযাত্রার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। যাঁরা মাছ ধরতে ইতিমধ্যেই সমুদ্রে পাড়ি দিয়েছেন, ২২ অক্টোবরের মধ্যে তাঁদের ফিরে আসার নির্দেশ দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

নিম্নচাপের কারণে অতিবৃষ্টির জন্য বৃহস্পতিবার  কৃষকদের প্রতি সতর্কীকরণ বার্তা দিয়েছে ভারতীয় আবহওয়া দপ্তর (IMD)। কোলকাতা থেকে প্রকাশিত আবহাওয়া বার্তা অনুযায়ী আগামী সপ্তাহে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে ঝড় ও ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে এলাকার কৃষকদের উদ্দেশ্যে জানানো হয়েছে যে অযথা আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য। অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে ফসলের সম্ভাব্য ক্ষতি এড়ানোর লক্ষ্যে মাঠে থাকা আমন ধান, সরিষা, ডাল শস্য ইত্যাদির ক্ষেত থেকে দ্রুত জমা জল বের করে দেবার ব্যবস্থা রাখতে বলা হয়েছে। যে সমস্ত ফসল তোলা বা কাটার উপযোগী হয়েছে তা কেটে ফেলে দ্রুত খামারজাত করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এলাকায় স্হাপিত কৃষি যন্ত্র ভাড়া কেন্দ্র (CHC) থেকে প্রয়োজনীয় কম্বাইন হারভেস্টার ভাড়া নিতে পারে চাষীরা। সবজি ও অন্যান্য ফলের ক্ষেত, বিশেষত পেঁপে / কলা জাতীয় ফসল যেগুলো ঝোড়ো হাওয়া ও বৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে, সেগুলি যাতে সহজে ভেঙে না পড়ে সেদিকে খেয়াল রাখতে বলা হয়েছে। সবজির মাচা, পানের বরজকে শক্ত করে বেঁধে রাখতে হবে যাতে প্রতিকূল আবহাওয়া থেকে রক্ষা করা যায়। অন্যান্য সবজির ক্ষেত্রেও অতিবৃষ্টির কারণে জমা জল দ্রুত নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করতে হবে এবং আবহাওয়ার উন্নতি হলে প্রয়োজনে ছত্রাকনাশক স্প্রে করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। রাজ্য থেকে এই নির্দেশিকা প্রতিটি ব্লকে পাঠানো হয়েছে। পূর্ব বর্ধমান জেলায়ও বিভিন্ন ব্লকে এই নির্দেশিকা আসার সঙ্গে সঙ্গে ব্লকের কৃষি দপ্তর প্রচার শুরু করে দিয়েছে। জামালপুর ব্লকের সহকারী কৃষি অধিকর্তা সঞ্জীবুল ইসলাম বিভিন্ন এলাকায় লিফলেট বিলি এবং মিডিয়ার মাধ্যমে চাষীদের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের পরামর্শ দিচ্ছেন। বিশদ জানতে এবং যেকোনো কৃষি সংক্রান্ত সমস্যায় কৃষি অফিসে যোগাযোগ করতে বলা হচ্ছে।

Post a Comment

0 Comments