চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

LIC Agent's News অস্তিত্ব রক্ষায় এল আই সি এজেন্টদের অসহযোগ আন্দোলন


 

LIC Agent's News 

অস্তিত্ব রক্ষায় এল আই সি এজেন্টদের অসহযোগ আন্দোলন 

# সংবাদ প্রভাতী, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

জগন্নাথ ভৌমিক, বর্ধমান : অস্তিত্ব রক্ষায় অসহযোগ আন্দোলনে নেমেছে এল আই সি এজেন্টরা। লাইফ ইনসিওরেন্স এজেন্টস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া এবং জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটি এই আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। সারা দেশের সঙ্গে পূর্ব বর্ধমান জেলাতেও ভারতীয় জীবন বীমা দপ্তরের বিভাগীয় অফিস সহ অন্যান্য অফিসেও চলছে ধর্ণা এবং বিক্ষোভ কর্মসূচি চলছে। বিমা সপ্তাহের শুরুতেই তিন মাস ব্যাপী আন্দোলনের ডাক দিয়েছে, লাইফ ইনসিওরেন্স এজেন্টস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া এবং  জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটি। শুধু ১ সেপ্টেম্বরের বিমা সপ্তাহের সূচনা কর্মসূচিই নয়, এল আই সি'র ম্যানেজমেন্টের ঘোষণা করা সব ধরনের প্রতিযোগিতা, পুরস্কার এমনকি ট্রেনিং প্রোগ্রামও বয়কট ঘোষণা করেছে ফেডারেশন। বর্ধমান ডিভিশন অফিস, কালনা, মন্তেশ্বর সহ সর্বত্র এল আই সি এজেন্টরা আন্দোলনে নেমেছেন।

জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটির ইস্টার্ন জোনের সভাপতি অরূপ ব্যানার্জী জানান, গোটা দেশে প্রায় ১৩ লাখের মতো এল আই সি এজেন্ট রয়েছেন। তাদের ফেডারেশন যৌথ ভাবেই এই প্রতিবাদ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, ৬৬ বছর ধরে লড়াই করে গ্রাহক ও এজেন্টরা যে অধিকার ও সুবিধাগুলি ভোগ করতেন সেগুলো শর্তসাপেক্ষ করে দিচ্ছে এল আই সি। বেসরকারি বিমা কোম্পানি গুলোকে বাঁকা পথে সুযোগ করে দিতে একের পর সরকারি বিমা ক্ষেত্রকে দুর্বল করার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। আই আর ডি আই এবং এল আই সি ম্যানেজমেন্টকে দিয়ে কৌশলে সেই সিদ্ধান্ত গুলো বাস্তবায়ন করতে চাইছে সরকার। নতুন নতুন সার্কুলার জারি করে বঞ্চিত করার চেষ্টা হচ্ছে পলিসি হোল্ডার এবং এজেন্টদের। জঘন্য এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে গোটা দেশেই সোচ্চার হচ্ছেন এজেন্ট সহ এল আই সির কর্মচারীরা। তাদের এই আন্দোলন আজ পঞ্চম দিনে। সোমবার এল আই সি 'র বর্ধমান ডিভিশন অফিসের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে। লাইফ ইনসিওরেন্স এজেন্টস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া এবং জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটির সদস্যরা। জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটির ডিভিশনাল লিডার ভাস্কর চৌধুরী'র নেতৃত্বে এল আই সি এজেন্টরা তাদের দাবি দাওয়া নিয়ে সোচ্চার হন। কালনায় এলআইসি এজেন্টরা আজ কর্ম বিরতি দিবস পালন করেন। তাঁরা অবস্থান সভা করার মাধ্যমে পলিশী হোল্ডার ও সাধারণ মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। মন্তেশ্বরে এল আই সি অফিসের সামনে এজেন্টরা প্রতিবাদ আন্দোলনে সরব হন।

এজেন্টদের অভিযোগ এল আই সি লাভজনক হওয়া সত্ত্বেও বোনাস সঠিকভাবে বাড়ানো হচ্ছে না। আসলে বেসরকারি লুটেরা কোম্পানি গুলোকে বাঁকা পথে সুযোগ করে দেওয়া কেন্দ্রীয় সরকারের কৌশল বলে মনে করছেন এজেন্টরা। এই পরিস্থিতিতে দেশ বাঁচাতে জনগণের সুরক্ষার স্বার্থে এল আই এ এফ আই এবং জে এ সি যৌথ আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। 

জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটির ইস্টার্ন জোনের সভাপতি অরূপ ব্যানার্জী জানান, পলিসি হোল্ডার ও এজেন্টদের বকেয়া দাবিদাওয়া ও ভবিষ্যত সুরক্ষার জন্য ভারতীয় জীবন বীমা নিগমের অধীনে কর্মরত এজেন্টদের সম্মিলিত সংগঠন প্রথম পর্যায়ের তিন মাসব্যাপী যে আন্দোলনের ডাক দিয়েছে আজ তার পঞ্চম দিন। আজ শাখা ও মণ্ডল (ডিভিশন) অফিসের সামনে গেট মিটিং ও বিক্ষোভ প্রদর্শনের পাশাপাশি বিশ্রাম দিবস পালন করা হয়। আজ নিগমের বিমাসপ্তাহ পালনের পঞ্চম দিন এজেন্ট দিবস হিসাবে পালিত হয়। তাই এই দিনই বয়কটের মাধ্যমে সংগঠনের তরফে সম্পূর্ন বিশ্রাম দিবস পালিত হচ্ছে দেশব্যাপী। নতুন পলিসি করা, রিনিউয়ল প্রিমিয়াম জমা সহ কোনো ধরনের পরিষেবা দেওয়া বা নেওয়ার কাজ করবে না এজেন্টরা। তাই আজ দেশব্যাপী বীমা পরিষেবা কার্যত স্তব্ধ।

Post a Comment

0 Comments