চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

বিদ্যাসাগরের জন্মদিন পালন


 

বিদ্যাসাগরের জন্মদিন পালন 


অতনু হাজরা, জামালপুর ও বর্ধমান : পূর্ব বর্ধমান জেলার জামালপুরে  বেরুগ্রাম আচার্য্য গিরিশ চন্দ্র বসু বিদ্যাপীঠে ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগরের জন্ম দিবস পালন করা হলো। বিদ্যাসাগরের ছবিতে মাল্যদান করেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দেবাশীষ মালিক। বিদ্যালয়ের প্রাণ পুরুষ প্রশান্ত কুমার বসুর আবক্ষ মূর্তিতে মালা দেন   শেখ নূর আলী ও শিক্ষিকা সোমা হালদার। 

বিদ্যাসাগর সম্পর্কে নানা কথা ও তথ্য তুলে ধরেন শিক্ষক বিপ্লব ঘোষ সহ অন্যান্যরা। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দেবাশীষ মালিক বলেন, বিদ্যালয়ে সব মনীষীদের জন্ম ও মৃত্যু দিন পালন করা হয়। তাই আজও বিদ্যাসাগর মহাশয়ের জন্মদিন পালন করা হলো। তাঁর সম্পর্কে যত ছেলে মেয়েরা জানতে পারবে ততই তাদের মঙ্গল হবে। তাই মনীষীদের  জন্ম মৃত্যু দিনে তাঁদের সম্পর্কে ছাত্র ছাত্রীদের সমৃদ্ধির জন্য অনেক কথাই বলা হয়।

২৬ সেপ্টেম্বর পন্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ২০৩ তম জন্মদিন যথাযোগ্য মর্যাদায় করে বর্ধমান মিউনিসিপ্যাল হাই স্কুলের প্রাথমিক বিভাগ। এদিন বিদ্যালয়ের বর্ণপরিচয় উদ্যানে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের আবক্ষ মূর্তিতে মাল্য দানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। বিদ্যাসাগরের জীবনাদর্শ নিয়ে আলোকপাত করেন শিক্ষারত্ন পুরস্কার প্রাপ্ত শিক্ষক তাপস কুমার পাল।

 বর্ধমান সাহিত্য পরিষদ ভবনে পণ্ডিত ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগর এর ২০৩ তম জন্ম দিবস পালিত হয়। প্রথমে প্রতিকৃতিতে মাল্য দান করা হয়, জীবনী নিয়ে আলোচনা শুরু করেন সম্পাদক কাশী নাথ গাঙ্গুলি, পরে আলোচনাতে অংশ নেন ডাঃ আবীর গুহ, অধ্যাপক সুজিত চট্টোপাধ্যায়, নিতাই মুখার্জি, কল্লোল চৌধুরী, দিব্যেন্দু বোস, সাংবাদিক উদিত সিংহ, অপূর্ব দাস, অধ্যাপিকা সুদত্তা ব্যানার্জি, আইনজীবী উদয় কোনার, নৃত্য শিল্পী ডাঃ মেহবুব হাসান, মানব সরকার, সঙ্গীত পরিবেশন করেন শুভ্রা সরকার, স্বাগতা বন্দ্যোপাধ্যায়, মুক্তা রায়, শিল্পা ব্যানার্জী, পম্পা ঘোষ, রুবী আজম, করবী ঘোষ, রুমা গুহ, সৌম্য মণ্ডল, রাজলক্ষ্মী রায়, সোমা ভট্টাচার্য। কবিতা পাঠ করেন তাপস ভূষণ সেনগুপ্ত, অশোক বর্মন, মন্দিরা মুখার্জী, সুজিত চক্রবর্তী, চিরঞ্জীব ঘোষ, সুধীর হাজরা, সুষমা মিত্র, হেমা পাল বর্ধন। মাউথ অর্গান এ গান পরিবেশন করে শিশু শিল্পী বৈভব পাল, বিকাল পাঁচ টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলে। কবি সাহিত্যিকদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

Post a Comment

0 Comments