চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

দেবী সর্বমঙ্গলা মাতার ঘট উত্তোলন ও প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শারদ উৎসবের সূচনা


 

দেবী সর্বমঙ্গলা মাতার ঘট উত্তোলন ও প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শারদ উৎসবের সূচনা 


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী :  বর্ধমানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী সর্বমঙ্গলা মাতার ঘট উত্তোলন ও প্রতিষ্ঠা হল আজ। রাজ আমলের প্রথা মেনেই প্রতি বছরের মতো চিরাচরিত প্রথা মেনে মহালয়ার পরের দিন প্রতিপদে দেবীর ঘট তোলা হয়, আজও তার ব্যাতিক্রম হয়নি। বিপুল ভক্তসমাগমের মধ্যে, শোভাযাত্রা সহকারে, ঢাক, ব্যান্ড বাজিয়ে, ধুনুচি নাচ সহযোগে জোড়া ঘোড়ার গাড়িতে করে মায়ের বিগ্রহ নিয়ে গিয়ে কৃষ্ণসায়র থেকে রুপোর ঘটে জল ভরে দেবীর ঘট প্রতিষ্টা হল। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, জেলা শাসক প্রিয়াঙ্কা সিংলা, বর্ধমান পৌরসভার চেয়ারম্যান পরেশ চন্দ্র সরকার, বর্ধমান রামকৃষ্ণ আশ্রমের অধ্যক্ষ স্বামী অজ্ঞেয়ানন্দজী মহারাজ সহ  মন্দির ট্রাস্ট কমিটির সম্পাদক সঞ্জয় ঘোষ, স্থানীয় কাউন্সিলর শ্যামা প্রসাদ ব্যানার্জী সহ অন্যান্য কাউন্সিলর এবং পদাধিকারীগণ। 

মন্দিরের ভারপ্রাপ্ত প্রধান পুরোহিত অরুণ ভট্টাচার্য বলেন,” আজ ঘট উত্তোলনের মধ্যে দিয়েই শারদ উৎসবের সূচনা হয় গেল। আগামী ৯ দিন ধরে চলবে নবরাত্রির মায়ের পুজো। তার সাথে চণ্ডীপাঠ। এছাড়াও বছরের প্রতিদিনই নিয়ম মেনে দেবীর পূজা হয়। দেবীকে ভোগ নিবেদন করা হয়। দেবী এখানে কষ্টিপাথরের, অষ্টাদশভূজা সিংহবাহিনী। রুপোর সিংহাসনে মা আসীন। আগে সন্ধি পুজোয় কামান দাগা হতো, মেষ, মহিষ ও ছাগ বলি হতো। বর্তমানে আর হয় না। সন্ধিপুজোয় কামানের আওয়াজ শুনে আশেপাশের সমস্ত জমিদার বাড়িতে সন্ধিপুজো শুরু হতো। নবমীতে হয় কুমারী পুজো।” 

Post a Comment

0 Comments