চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

সাবেকিয়ানার সন্ধানে প্রতিযোগিতায় সেরার সেরা বর্ধমানের অঙ্কিতা


 

সাবেকিয়ানার সন্ধানে প্রতিযোগিতায় সেরার সেরা বর্ধমানের অঙ্কিতা 


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : শারদ উৎসবকে সামনে রেখে "সাবেকিয়ানার সন্ধানে" শীর্ষক একটি প্রতিযোগিতা আয়োজিত হলো শহর বর্ধমানে। বৃহস্পতিবার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বর্ধমান সহযোদ্ধা'র উদ্যোগে বর্ধমান কোর্ট কম্পাউন্ড এলাকায় কালেক্টরেট রিক্রিয়েশন ক্লাবে সাবেকিয়ানার প্রতিযোগিতার আসর বসে। এদিন মূলত আলপনা আঁকা, মালা গাঁথা, ধুনুচি নাচ এই তিনটি বিষয়ের প্রতিযোগিতা হয়। 

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পূর্ব বর্ধমান জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি আধিকারিক রাম শংকর মন্ডল, পূর্ব বর্ধমান জেলার মহিলা থানার আইসি বনানী রায়, বিশিষ্ট চিকিৎসক সৌমিক ঘোষ, ইন্ডিয়ান জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন এর পূর্ব বর্ধমান জেলা সভাপতি স্বপন মুখার্জি, বর্ধমান রামাশীষ হিন্দি হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক ডঃ বিদ্যানন্দন সিং, বর্ধমান রাজ কলেজের অধ্যাপক ওম শংকর দুবে প্রমূখ।

উল্লেখ্য সাবেকিয়ানার সন্ধানে শীর্ষক প্রতিযোগিতা এবার নিয়ে পঞ্চম বর্ষ। এবারের প্রতিযোগিতার মধ্যে  'আলপনা আঁকা' প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করে গীতশ্রী সাহা, দ্বিতীয় -বিপাশা কোলে এবং তৃতীয় স্থান পায় অভিজিৎ পাঁজা। 'মালা গাঁথা' প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান পায় সুচিত্রা মাল, দ্বিতীয়-অরুনিমা সরকার এবং তৃতীয় স্থান পায় সরোজিনী পাল। 'ধুনুচি নাচ' প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করে অঙ্কিতা তা, দ্বিতীয় চয়নিকা ওরাও এবং তৃতীয় স্থান পায় অর্পিতা মন্ডল। স্থানাধিকারী প্রত্যেককে মেডেল, শংসাপত্র ও পুরস্কার দেওয়া হয়। 

প্রতিযোগিতায় তিনটি বিভাগ মিলিয়ে সেরার সেরা শিরোপা অর্জন করে বিজয়ীর মুকুট ছিনিয়ে নেয় অঙ্কিতা তা। বর্ধমান সহযোদ্ধা 'র পক্ষ থেকে অঙ্কিতা -কে পিতলের মা দুর্গার মূর্তি প্রদানের পাশাপাশি মাথায় জয়ের মুকুট পরিয়ে সম্মানিত করা হয়। 

বর্ধমান সহযোদ্ধা'র পক্ষে সম্পাদক প্রীতিলতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, এই আধুনিকতার যুগে সাবেকিয়ানাকে বাঁচিয়ে রাখার এটা এক ক্ষুদ্র প্রয়াস। আমরা বেশ কয়েক বছর ধরে চালিয়ে আসছি। আর তাতে বেশ ভালই সাড়া পাওয়া যাচ্ছে।

Post a Comment

0 Comments