Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

By-Election টানটান উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতিতে আসানসোল পৌর নিগমের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ হলো


 

By-Election টানটান উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতিতে আসানসোল পৌর নিগমের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ হলো 


কাজল মিত্র, আসানসোল : আসানসোল পৌর নিগমের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে আজ অনুষ্ঠিত হলো উপনির্বাচন। এখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন চারটি রাজনৈতিক দলের প্রার্থী। যেখানে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় যেমন রয়েছেন, তেমনই বিজেপির পক্ষ থেকে শ্রীদীপ চক্রবর্তী, সিপিআই(এম) এর পক্ষ থেকে শুভাশীষ মণ্ডল ও কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সোমনাথ চ্যাটার্জী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।


জকের উপনির্বাচনে ৮২.২৪% ভোট পড়েছে। টানটান উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্তিতির মধ্যে ভোট গ্রহণের কাজ শেষ হয়। ৬নং ওয়ার্ডে জামুড়িয়ার মোট ১৪টি বুথে ভোট গ্রহণ হয়। যার মধ্যে মণ্ডলপুরে রয়েছে ৪ টি, আখলপুরে ২টি, বনমালীপুরে ৫ টি,  জাদুডাঙায় ১টি ও বেড়ালায় ২ টি বুথ।  ভোট গ্রহণের কাজে নিযুক্ত ছিলেন ৮০ জন ভোট কর্মী। এছাড়া ভোট গ্রহণ পর্বে যাতে কোনো প্রকার অশান্তি ছড়িয়ে পড়তে না পারে তার জন্যে এডিপিসির পক্ষ থেকে এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছিল৷

তবে এদিন সকালের প্রথম কয়েক ঘন্টায় ভোট গ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে হলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে বিরোধীদের শাসক  দলের বিরুদ্ধে ভোট লুঠের অভিযোগ তীব্র হতে শুরু করে। বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়  তাদের পোলিং এজেন্টকে বের করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও জামুড়িয়ার বেশ কয়েকটি বুথে সকাল থেকেই অবাধে ভোট লুঠ করছে রাজ্যের শাসক দল এমনই অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এর পরেই সকাল ১১ টা নাগাদ পুনর্নির্বাচনের দাবিতে জে কে নগর অঞ্চলে দুর্গাপুর পশ্চিমের বিধায়ক লক্ষণ ঘড়ুই ও বিজেপির জেলা সভাপতি দিলীপ দে’র নেতৃত্বে বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা ২ নং জাতীয় সড়ক অবরোধ করতে যায় ৷ সেই সময় এলাকার তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের সাথে বচসা ও হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে বিজেপি কর্মীরা।ঘটনাস্থলে দ্রুত বিশাল পুলিশ বাহিনী পৌঁছে অবরোধকারীদের সরিয়ে দেয় ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বিজেপির জেলা সভাপতি দিলীপ দে, দুর্গাপুর পশ্চিমের বিধায়ক লক্ষণ ঘড়ুই ও বিজেপির রাজ্য কমিটির সদস্য কৃষ্ণেন্দু মুখার্জী দাবি করেন সকাল থেকেই তৃণমূল বহিরাগতদের এনে ভোট লুঠ করছে।ভোট লুঠের জন্যে তৃণমূল বীরভূম, পাণ্ডবেশ্বর ও বারাবনি থেকে দুষ্কৃতীদের হাজির করেছে ৷ পুলিশ প্রশাসন ভোট লুঠ প্রতিহত না করে নীরব সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে। এরপরেই বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা এদিন আসানসোলে মহকুমা শাসকের দপ্তরে এসে উপস্থিত হয়ে দুপুর ২ টো থেকে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করে। অন্যদিকে বেনালির বনমালিপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বুথ জ্যাম করার অভিযোগ তোলে সিপিআই(এম)প্রার্থী শুভাশীষ মণ্ডল৷ 

পরে ওই বুথ পরিদর্শনে আসেন তৃণমূল প্রার্থী বিধান উপাধ্যায়। তিনি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন ভোট অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে হচ্ছে। ভোট গ্রহণকে কেন্দ্র করে এলাকার সাধারণ মানুষ উৎসবের মেজাজে রয়েছে। বহিরাগত হিসাবে এখানে কেউ নেই। জামুড়িয়ার ৬ নং ওয়ার্ডের সব স্থানীয়রাই উপস্থিত আছেন। প্রার্থী বিধান উপাধ্যায় বলেন, পরাজয়ের গন্ধ পেলেই বিরোধীরা সবসময় এই ধরণের আওয়াজ তোলে বাজার গরম করতে চায়।