চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

উচ্চ মাধ্যমিকে কৃতীদের ব্লক তৃণমূলের সম্বর্ধনা

 


উচ্চ মাধ্যমিকে কৃতীদের ব্লক তৃণমূলের সম্বর্ধনা 


অতনু হাজরা, জামালপুর : উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ শুক্রবার অনলাইনের মাধ্যমে প্রকাশ করেছে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রেজাল্ট। এবারে উচ্চ মাধ্যমিকেও ভালো ফল হয়েছে পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর ব্লকে। ৪৮৩ পেয়ে ব্লকে প্রথম হয়েছে জামালপুর গার্লস হাই স্কুলের ছাত্রী শ্রীলতা পাল। দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে সোনিয়া খন্দেকার সেলিমাবাদ হাই স্কুলের ছাত্রী, ৪৮০ পেয়ে তৃতীয় হয় পর্বতপুর গার্লস হাই স্কুলের ছাত্রী অদিতি ঘোষ ও যুগ্মভাবে চতুর্থ হয় পর্বতপুর গার্লস হাই স্কুলের ছাত্রী পূজা পাত্র (৪৭৯) ও পায়েল সাধুখা (৪৭৯)। এছাড়াও অনেক ছাত্র ছাত্রী যারা ৪৫০ এর উপর নম্বর পেয়েছে।  সবচেয়ে দেখার  বিষয় প্রথম চারজনের মধ্যে যে পাঁচজন আছে তারা সবাই ছাত্রী।মহিলাদের এগিয়ে নিয়ে যেতে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নানা প্রকল্পেরই ফলশ্রুতি এগুলো।

 মেয়েরাও আজ সমান তালে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে চলেছে। এই পাঁচজন কৃতিকে ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আজ তাদের বাড়িতে গিয়ে সম্বর্ধনা জানান বিধায়ক অলোক কুমার মাঝি ও তৃণমূলের ব্লক সভাপতি মেহেমুদ খান। ছিলেন ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিট্টু মল্লিক সহ এলাকার প্রধান, উপ প্রধান এবং ওই বিদ্যালয়গুলোর পরিচালন সমিতির সভাপতিরা। বিধায়ক অলোক কুমার মাঝি বলেন যে এই সমস্ত ছেলে মেয়েরাও আগামীদিনে দেশের সু নাগরিক হয়ে উঠবে। ওদের সফল ভবিষ্যত কামনা করেন তিনি। 

মেহেমুদ খান বলেন কন্যাশ্রী'র সুফল পাচ্ছে এবার রাজ্য। এই কৃতী ছাত্রীদের সম্বর্ধনা জানাতে পেরে খুবই ভালো লাগছে। আজ মেয়েরা সমানে পাল্লা দিচ্ছে ছেলেদের সাথে। বিট্টু মল্লিক বলেন আগামী দিনে ওরা কলেজে ভর্তি হবে বা যেকোনো লাইনে পড়ুক ওদের ভবিষ্যত জীবন প্রতিষ্ঠিত হোক এটাই কামনা। সম্বর্ধনা পেয়ে খুব খুশি কৃতী ছাত্র ছাত্রীরা।

Post a Comment

0 Comments