চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

উচ্চ মাধ্যমিকে নবম স্থানাধিকারি দেবাশীষকে বিধায়কের সম্বর্ধনা


 

উচ্চ মাধ্যমিকে নবম স্থানাধিকারি দেবাশীষকে বিধায়কের সম্বর্ধনা 


দ্বারকানাথ দাস, পূর্বস্থলি : গ্রামের অতি সাধারণ পরিবারের ছেলে দেবাশীষ সাহা অসামান্য রেজাল্ট করে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। পূর্ব বর্ধমান জেলার পূর্বস্থলি ২ ব্লকের পাটুলি গ্রামের দাস পাড়ার কৃতি সন্তান দেবাশীষ সাহা এবছর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৪৯০ নম্বর পেয়ে রাজ্যের মেধা তালিকায় নবম স্থানে রয়েছে। দেবাশীষ অঙ্কে ১০০, ইংরেজিতে ৯৯, বায়োলজিতে ৯৮, কেমিষ্ট্রিতে ৯৭, ফিজিক্সে ৯৬ এবং বাংলায় ৯০ নম্বর পেয়েছে। ওঁর এই সাফল্য এলাকার মানুষজন খুশিতে আপ্লুত। উল্লেখ্য উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের মেধা তালিকায় এবার পূর্ব বর্ধমান জেলার ৪ জন কৃতি ছাত্র-ছাত্রী স্থান করে নিয়েছে।

তাদের এই সাফল্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সকলকেই শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন। পূর্বস্থলি উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক তপন কুমার চট্টোপাধ্যায় দেবাশীষ এর বাড়িতে গিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে এসেছেন।


পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুভেচ্ছা বার্তায় লিখেছেন -

প্রিয় দেবাশীস,

উচ্চ মাধ্যমিক, ২০২২-এ তুমি অসাধারণ সাফল্য অর্জন করেছ। তোমাকে অনেক অনেক অভিনন্দন ।

এই সাফল্যে তোমার অভিভাবক, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শুভানুধ্যায়ীদের অবদানও অনেক। আমি তাঁদেরও আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।

ভাল করে লেখাপড়া করে মানুষের মত মানুষ হও - আমার অনেক শুভেচ্ছা রইল।

এ কথা জানবে, আমি সবসময় তোমাদের পাশে আছি।

ভাল থেকো, সুস্থ থেকো। জীবনে অনেক বড় হও আর চলার পথে এগিয়ে যাও। 

বিধায়ক তপন কুমার চট্টোপাধ্যায় দেবাশীষ কে শুভেচ্ছা পত্রে উল্লেখ করেছেন, স্কুলে সর্বোচ্চ নম্বর প্রাপ্তির কারণে তোমার স্কুল,এলাকাবাসী এবং গ্রামবাসী ভীষণ ভাবে গর্বিত। তুমি উচ্চশিক্ষা লাভ করে প্রকৃত মানুষ হয়ে সমাজ গঠনের কাজে সক্রিয় অংশীদার হবে এই আশাকরি ।

Post a Comment

0 Comments