চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

কৃতী ছাত্র ছাত্রীদের সম্বর্ধনা


 

কৃতী ছাত্র ছাত্রীদের সম্বর্ধনা 


অতনু হাজরা,জামালপুর : প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল। আর তাতে দেখা যাচ্ছে পূর্ব বর্ধমান জেলা বিপুল সাফল্য পেয়েছে। রাজ্যে প্রথম সহ ১৩ জন মেধাতালিকায় প্রথম দশে স্থান পেয়েছে। জামালপুর ব্লকেও এবারে মাধ্যমিকে যথেষ্ট ভালো ফল হয়েছে। ব্লকে ৬৮১ নম্বর পেয়ে প্রথম হয়েছে কালনা কাঁশড়া হাই স্কুলের ছাত্র অরিত্র মাইতি।   তাঁর বাড়িতে গিয়ে সম্বর্ধনা জানালেন জামালপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি মেহেমুদ খান ও যুব সভাপতি ভূতনাথ মালিক। আজ তাঁরা অরিত্রর বাড়িতে গিয়ে সৌজন্য হিসাবে তার হাতে ফুলের তোড়া, মিষ্টির প্যাকেট, উত্তরীয়, পেন তুলে দেন এবং তার ভবিষ্যত জীবনের সাফল্য কামনা করেন। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিট্টু মল্লিক, অমিত চক্রবর্তী, উজ্জ্বল চক্রবর্তী সহ অন্যান্যরা। এরপর তাঁরা যান বেরুগ্রামের রামনাথপুর গ্রামে। 

সেখানে মারণ রোগ ক্যানসারকে জয় করে এক ছাত্রী সামিনা খাতুন মাধ্যমিক পাশ করেছে। তাঁকেও তাঁর বাড়িতে গিয়ে সম্বর্ধনা জানান তাঁরা। শুধু তাই নয় এতদিন পর্যন্ত ওর পড়াশোনার সব দেখাশোনা করতেন যুব সভাপতি ভূতনাথ মালিক, তার চিকিৎসার জন্যও তাঁরা যথেষ্ট সহযোগিতা করেছেন। আগামী দিনে সর্বতোভাবে তাঁরা তার পাশে থাকবেন বলে জানান। সামিনার আবেদনের ভিত্তিতে পঞ্চায়েত সমিতি থেকে তাঁকে ১০ হাজার টাকা অনুদান দেবার কথা বলেন ব্লক সভাপতি তথা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান। প্রসঙ্গত গতকালই তার বাড়িতে এসে তাকে সম্বর্ধীত করেন জামালপুর থানা। উপস্থিত ছিলেন এস ডি পি ও সুপ্রভাত চক্রবর্তী, জামালপুর থানার ওসি রাকেশ কুমার সিং।

Post a Comment

0 Comments