চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

কেন্দ্রের বঞ্চনার বিরুদ্ধে তৃণমূলের প্রতিবাদ মিছিল


 

কেন্দ্রের বঞ্চনার বিরুদ্ধে তৃণমূলের প্রতিবাদ মিছিল 


কাজল মিত্র, আসানসোল : পেট্রোপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রভাব পড়ছে খাদ্য সামগ্রীর উপর। ফলে খাদ্য সামগ্রীর দাম বেড়েই চলেছে। তাছাড়া পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে একশো দিনের কাজের বকেয়া অর্থ আদায়ের দাবিতে এবং দিনের পর দিন অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধির জেরে সারা রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে প্রতিবাদ মিছিল। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় এই প্রতিবাদ মিছিল সংগঠিত   হচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে। আর তাই পেট্রোল-ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বারাবনি ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অসিত সিংহ এর নেতৃত্বে বারাবনিতে একটি মহা মিছিল বের করা হল রবিবার। মিছিলে পা মেলান বহু কর্মী সমর্থকেরা। এদিন তৃণমূলের কর্মী সমর্থকেরা বিজেপি হটাও দেশ বাঁচাও স্লোগানে মিছিলে পা মেলান। মিছিলটি বারাবনি ব্লকের পানুড়িয়া আমবাগান থেকে শুরু করে হাটতলা পর্যন্ত পায়ে হেঁটে ঐতিহাসিক প্রতিবাদ মিছিল করে। এদিনের মিছিলে উপস্থিত বারাবনি ব্লক  তৃণমূলের সভাপতি অসিত সিংহ বলেন,  পেট্রোল ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি পাশাপাশি রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস লাগাতার  প্রতিবাদ চালাচ্ছে। রান্নার গ্যাস ও পেট্রোল-ডিজেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বাড়ছে। ৩০ টাকা দাম বাড়িয়ে ৫ টাকা দাম কমাচ্ছে মোদী সরকার। এটা মানুষকে ভাঁওতাবাজি দেওয়া হচ্ছে। তাদের দাবি অবিলম্বে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম কমাতে হবে।

তাছাড়া কেন্দ্রীয় সরকার যেভাবে বাংলাকে সবদিক থেকে বঞ্চিত করছে তাতে বাংলার পাওনা টাকা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকার বাংলার গরিব মানুষের কাছ থেকে কেড়ে নিচ্ছে। রাজ্য সরকারের ১০০ দিনের কাজের টাকা পর্যন্ত দিচ্ছেনা আর তাই এই সবের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেস আন্দোলন চালাবে। তিনি বলেন সামনে ২০২৪  এর ভোটের ফলে এলাকার মানুষ ঠিক জবাব দেবে। কারন দেশে মোদি থাকলে সব শেষ হায়ে যাবে। কোন কিছু  বাকি থাকবেনা, সব বিক্রি হয়ে যাবে। 

এদিনের এই মিছিলে বহু তৃণমূলের সমর্থক এর সাথে জামগ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান কেশব রাউত, আসিস মন্ডল সহ অনেকে ছিলেন।



Post a Comment

0 Comments