চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

"ভ্রাম্যমান দুয়ারে সরকার" প্রসংশায় পঞ্চমুখ এলাকার মানুষ


 

"ভ্রাম্যমান দুয়ারে সরকার" প্রসংশায় পঞ্চমুখ এলাকার মানুষ 


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : আজ থেকে শুরু হলো চতুর্থ পর্যায়ের দুয়ারে সরকার। বিগত দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে সাধারণ মানুষ যে যে সরকারি পরিষেবা পেয়েছিলেন এবারও সেগুলি যেমন পাচ্ছেন পাশাপাশি আরো কিছু অতিরিক্ত পরিষেবা এবার পাচ্ছেন। তবে এবারের দুয়ারে সরকার এর অন্যতম আকর্ষণ "ভ্রাম্যমান দুয়ারে সরকার"।  যে সমস্ত এলাকার মানুষ গতবার ক্যাম্পে আসতে পারেননি বা আসার সমস্যা আছে সেইসব গ্রাম বা এলাকায় তাদের ঘরের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে এই ভ্রাম্যমান দুয়ারে সরকারের গাড়ি। সেখানে তারা বাড়ির দুয়ারে পরিষেবা পেয়ে যাচ্ছেন। 

মেমারি-১ ব্লকের আমাদপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বিজড়া গ্রামে আজ পৌঁছেছিল ভ্রাম্যমান দুয়ারে সরকারের মোবাইল ভ্যান। বিজড়া গ্রামের সায়েরর পাড়ে বসবাস করেন প্রায় সত্তর ঘর আদিবাসী পরিবার। তারা বিভিন্ন কারণে আগের ক্যাম্পে আসতে পারেনি,  তাদের কাছেই এদিন গেল ভ্রাম্যমাম দুয়ারে সরকার। তারা সরাসরি বিভিন্ন দপ্তরের আধিকারিকদের কাছে পরিষেবা নিলেন। বাসিন্দারাও খুব খুশি। পাড়ার সুমিত্রা হাঁসদা, প্রতিমা কুড়ি, মাকু হেমব্রম, গণেশ মুর্মু'রা জানালেন,  তারা এই পরিষেবা পেয়ে খুব খুশি। তারা বলেন,  বাড়ির দুয়ারেই সরকারি পরিষেবা পেয়ে গেলাম। আর কি চাই। সত্যি সরকার মানুষের জন্য কিছু করছে। 

মেমারি-১ ব্লকের বিডিও ডা. আলি মহ: ওয়ালি উল্লাহ জানান, আমরা আজ থেকে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পগুলির পাশাপাশি এবার ভ্রাম্যমান দুয়ারে সরকার বিভিন্ন এলাকায় পাঠাচ্ছি। যেখানকার মানুষজন নানান কারণে আমাদের ক্যাম্পে আসতে পারেননি তাদের কাছেই পৌঁচ্ছে যাবার চেষ্টা করছি। এই উদ্যোগ আমাদের দশটি গ্রাম পঞ্চায়েতে প্রত্যেক জায়গায় একটি করে ভ্রাম্যমান গাড়ি থাকবে।

Post a Comment

0 Comments