চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটি অলিম্পিক : মহিলা ক্যারাটে মাইনাস ৫০ কেজি কুমি বিভাগে  ব্রোঞ্জ জিতলেন রঞ্জিতা


 

ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটি অলিম্পিক : মহিলা ক্যারাটে মাইনাস ৫০ কেজি কুমি বিভাগে  ব্রোঞ্জ জিতলেন রঞ্জিতা 


কাজল মিত্র, চিত্তরঞ্জন : খেলো ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটি অলিম্পিক ২০২১ খেলায় মহিলা ক্যারাটে মাইনাস ৫০ কেজি কুমি বিভাগে  ব্রোঞ্জ জিতলেন রঞ্জিতা সিনহা। খেলাটি বেঙ্গালুরু জৈন ইউনিভার্সিটিতে ৩০ এপ্রিল থেকে ২ মে পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। তিনদিনের খেলো ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে  ব্রোঞ্জ পদক জিতলেন রঞ্জিতা সিনহা।

এর আগে হরিয়ানার কুরুক্ষেত্রে অল ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটি খেলায় দেশের জন্য সিলভার  অলিম্পিক পদক নিশ্চিত করে ফেলেছিলেন রঞ্জিতা। পশ্চিমবঙ্গ থেকে চিত্তরঞ্জন শহরের একমাত্র মেয়ে রঞ্জিতা সিনহা। তার প্রাথমিক পড়াশুনা চিত্তরঞ্জন থেকেই তবে এখন রঞ্জিতা হরিয়ানার অল ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে বিপিইএস স্পোর্টস অনার্স নিয়ে পড়াশুনা করছে। চিত্তরঞ্জন শহরের একমাত্র মেয়ে রঞ্জিতার এই পদক জয়ে খুশি চিত্তরঞ্জনবাসী সহ তার পরিজনেরা। রঞ্জিতা সিনহার পিতা রঞ্জিত কুমার সিনহা  চিত্তরঞ্জন রেল শহরের কস্তুরবা গান্ধী হাসপাতালের কর্মী। তার ভাই রণবীর সিনহাও একই ভাবে এই ক্যারেটে খেলার সাথে যুক্ত।

রঞ্জিতার  পিতা রঞ্জিত সিনহা জানান তার মেয়ের জন্য অনেক গর্ব বোধ হয়। বহুদিনের স্বপ্ন ছিল তার মেয়েকে ক্যারেটে চ্যাম্পিয়ন শিপ এক উঁচু জায়গায় দেখার। তবে তার মেয়ের ব্রোঞ্জ জেতার পর স্বপ্ন পূরণে অনেকটাই আসার আলো জ্বলে উঠেছে। তার মা জানান, এখনকার সমাজে ছেলে মেয়ে সবাই সমান তাই আমার পরিবারে একমেয়ে ও ছেলে রয়েছে দুজনকেই একই শিক্ষা দিয়ে আসছি। এমন নয় যে মেয়ে বলে ক্যারাটে, বক্সিং এসব শেখা মানা। বরঞ্চ এখনকার জন্যে তাদের এই শিক্ষা অনেকটাই আত্মরক্ষার কাজও করবে। 

রঞ্জিতার সহকারি কোচ জানান রঞ্জিতা এই সাফল্যের পেছনে তার মা ও বাবার সাথে সাথে প্রধান কোচ বিষ্ণু ভাগবান শর্মার অবদান অনেকটাই রয়েছে। যেভাবে তিনি চিত্তরঞ্জন শহরের এরিয়া ৩ কমিউনিটি হলে সকলকে প্রশিক্ষণ দেন। রঞ্জিতার এই সাফল্য চিত্তরঞ্জন এর গর্ব।

Post a Comment

0 Comments