চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ কর্মসূচিতে নজির রাখলো স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা


 

সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ কর্মসূচিতে নজির রাখলো স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা 


অতনু হাজরা, জামালপুর : পথ নিরাপত্তা সুরক্ষিত করতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 'সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ' কর্মসূচি চালু করেছেন। পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি জেলায় পুলিশ প্রশাসন এই কর্মসূচির মাধ্যমে বাইক, চারচাকা থেকে বাস-লরি চালকদের পথ সচেতনতামূলক প্রচার অভিযানে নামে। নানান আঙ্গিকে ধারাবাহিক ভাবে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ কর্মসূচি চলছে। 

পুলিশ প্রশাসনের পাশাপাশি 'সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ' কর্মসূচির প্রচার ও বাস্তবায়নে এগিয়ে এলো জামালপুর নাগরিক জনকল্যাণ সোসাইটি। সংস্থার সভাপতি মেহেমুদ খান ও কোষাধ্যক্ষ ভূতনাথ মালিক সোমবার সোসাইটির পক্ষ থেকে জামালপুর পুল মাথায়  'সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ' বিষয়ক একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। এই কর্মসূচিকে উৎসাহিত করতে উপস্থিত হয়ে ছিলেন স্বয়ং পূর্ব বর্ধমান জেলার পুলিশ সুপার কামনাশীষ সেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন এসডিপিও সুপ্রভাত চক্রবর্তী, বিধায়ক অলক কুমার মাঝি, জামালপুরের বিডিও শুভঙ্কর মজুমদার, জামালপুর থানার ওসি রাকেশ কুমার সিং সহ অন্যান্যরা।

এদিনের অনুষ্ঠানে জামালপুর নাগরিক জনকল্যাণ সোসাইটির পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার কামনাশীষ সেন এর হাতে ২০ টি রোড ব্যারিকেড এবং জামালপুর থানার পুলিশ কর্মীদের জন্য ১৫ টি হেলমেট তুলে দেওয়া হয়। এছাড়াও এদিন অনুষ্ঠান মঞ্চের সামনে থেকে বাইক আরোহীদের হাতে পথ সচেতনতার বার্তা দিয়ে ৫০ টি হেলমেট তুলে দেওয়া হয়। আগামী কয়েকদিনে বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে পথ সচেতনতার বার্তা দিয়ে আরও ৫০ টি হেলমেট প্রদান করা হবে।

জামালপুর নাগরিক জনকল্যাণ সোসাইটি এই ধরনের একটি কর্মসূচি গ্রহণ করায় পুলিশ সুপার কামনাশীষ সেন সোসাইটির সভাপতি মেহেমুদ খান সহ অন্যান্যদের বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানান। তিনি বাইক আরোহীদের প্রতি সবিনয় অনুরোধ জানিয়ে বলেন, হেলমেট ছাড়া কেউ বাইক চালাবেন না। ট্রেকারে ঝুলে যাতায়াত করার ক্ষেত্রেও মানুষজনকে সচেতন করেন। পুলিশ সুপার আরও বলেন, আজ জনকল্যাণ সোসাইটি পুলিশের হাতে যে রোড ব্যারিকেডগুলো দিচ্ছে এগুলো জনগণের পথ নিরাপত্তার কাজেই ব্যবহার হবে। 

বিধায়ক অলক কুমার মাঝি, এসডিপিও সুপ্রভাত চক্রবর্তী এবং বিডিও শুভঙ্কর মজুমদার প্রত্যেকেই এদিনের কর্মসূচির প্রশংসা করেছেন। একই সঙ্গে খুশির ঈদের প্রাক্কালে পথ সচেতনতার বার্তা দিয়েছেন।

নাগরিক জনকল্যাণ সোসাইটি সভাপতি মেহেমুদ খান বলেন, সারা বছরই তারা জনসেবামূলক নানা কাজ করে থাকেন। আজ পুলিশ সুপারের হাতে কুড়িটি রোড ব্যারিকেড, পনেরটি হেলমেট তুলে দেওয়ার পাশাপাশি পথ চলতি শতাধিক বাইক আরোহীকে হেলমেট প্রদানের কাজ শুরু হয়েছে। এছাড়া সাধারণ মানুষের হাতে কিছু পানীয় জলের বোতলও তুলে দেওয়া হয়।

এদিনের অনুষ্ঠানে জামালপুর নাগরিক জনকল্যাণ সোসাইটির সভাপতি মেহেমুদ খান, কোষাধ্যক্ষ ভূতনাথ মালিক, সমাজসেবী গোবিন্দ মন্ডল, মানিক চন্দ্র পাল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সাহাবুদ্দিন মন্ডল, তাবারক আলি মন্ডল, বিট্টু মল্লিক, পূর্ণিমা মালিক প্রমখ।

Post a Comment

0 Comments