Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

বাড়ির ছাদ থেকে যুবকের রক্তাক্ত মৃতদেহ দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য


 

বাড়ির ছাদ থেকে যুবকের রক্তাক্ত মৃতদেহ দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য


কাজল মিত্র, আসানসোল : পশ্চিম বর্ধমান জেলার সালানপুর থানার চিতালডাঙ্গা গ্রামের একটি বাড়ির ছাদ থেকে উদ্ধার হয়েছে এক যুবকের রক্তাক্ত মৃতদেহ। এই ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বুকের মাঝে ছুরির আঘাতে খুন  করা হয়েছে বলে অনুমান পুলিশের। 

পুলিশ সূত্রে জানা যায় বৃহস্পতিবার রাতে মনোজ পাতর নামে একজনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। তাঁর নিজের একতলা বাড়ির ছাদ থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মনোজ তাঁর স্ত্রী ও সন্তানদের সাথে, ওই বাড়িতে থাকতো। পেশায়  সাধারণ মজদুরের কাজ করতো। তাঁর স্ত্রী জানায় তাঁরা সেদিন নীচের রুমে শুয়েছিল।  কিন্তু তাঁর স্বামী ছাদের উপরে শুয়ে ছিলেন ।কিন্তু মাঝ রাতে ছাদের মধ্যে তাঁর স্বামীর চিৎকারের আওয়াজ শুনতে পান এর পরেই কোনও  ব্যক্তির পালিয়ে যাওয়ার শব্দও পাওয়া যায়  বলে অভিযোগ স্ত্রীর। তখন আশেপাশে ডাক দেনককষ্ট এবং স্থানীয় লোকজন ও প্রতিবেশীরা যখন ছাদে গিয়ে দেখে তখন  মনোজ পাতর রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে ।

ঘটনাস্থলে সালানপুর থানার আইসি সহ রূপনারায়নপুর ফাঁড়ির পুলিশ আসে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান বুকে ছুরির  আঘাতের চিহ্ন রয়েছ। তাঁর স্ত্রীর অভিযোগ, তাদের কাছে সামডির দুই ব্যক্তি টাকা পেত সেইজন্যে বৃহস্পতিবার বিকেলে তাদের বাড়িতে এসেছিল। তার স্ত্রীর অভিযোগ তারাই খুন করেছে তার স্বামীকে । 

ঘটনাস্থলে সালানপুর থানার পুলিশ এসে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পরিবারের লোকজনকে। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য আসানসোল জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত চলছে। কী করে এমন হল, তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। কথা বলার চেষ্টা করা হচ্ছে প্রতিবেশীদের সঙ্গে। ওই বাড়িতে কে বা কারা এসেছিলেন, তা জানার চেষ্টা চলছে। বাড়ি থেকে কিছু খোয়া গিয়েছে কিনা, তা-ও দেখা হচ্ছে।

তবে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসার পরেই গ্রাম থেকে এক যুবক কে পালাতে দেখে গ্রামবাসীরা  তারপরেই তাকে গ্রাম থেকে কিছুটা দূরে দৌড়ে গিয়ে গ্রামবাসীরা ওই যুবককে আটক করে টৌএবং তার উপর চড়াও হয়।প স্থানীদের অভিযোগ ওই যুবকই এই হত্যার পিছনে রয়েছে ।পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে যুবক কে আটক করে নিয়ে যায়। এবং ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।