Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পাল


 

মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন  বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পাল 


কাজল মিত্র, আসানসোল : আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনকে ঘিরে রাজনীতির পারদ ক্রমশঃ বাড়ছে। একে অপরকে টেক্কা দিয়ে র‌্যালি বের করে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে দেখা গেল। বুধবার সিপিএম প্রার্থী পার্থ মুখোপাধ্যায়  মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার পাশাপাশি বিজেপি প্রার্থী তথা আসানসোল দক্ষিণের বিধায়িকা অগ্নিমিত্রা পাল মনোনয়ন পত্র জমা দিতে দিলেন পশ্চিম বর্ধমানের জেলাশাসকের দপ্তরে। এদিন সকাল সাড়ে দশটার সময় প্রার্থীর মনোনয়ন জমা দেওয়ার জন্য জেলা বিজেপির পক্ষ থেকে একটি সুসজ্জিত র‌্যালি করা হয়  আসানসোলের জিটি রোডের রবীন্দ্র ভবনের সামনে থেকে। হুড খোলা গাড়িতে প্রার্থীর সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের বিরোধী নেতা শুভেন্দু অধিকারী তাছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা অর্জুন সিং, জিতেন্দ্র তেওয়ারী, লক্ষণ ঘড়ুই সহ আরো অনেকে। 

আসানসোলের বিজেপি সমর্থকদের মিছিলের সাথে সদর র‌্যালিতে  ধামসা মাদলের সঙ্গে ছিল পুরুলিয়ার ছো  নৃত্য। বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল প্রথমে জি টি রোডের ভগৎ সিং মোড়ে ভগৎ সিং এর মূর্তিতে মাল্যদান করেন এরপর সেখান থেকে র‌্যালিটি বের করে জেলাশাসক অফিসের সামনে শেষ হয়। র‌্যালির মধ্যে সহস্র মানুষের ভিড় দেখাগেল। র‌্যালি শেষে সকলে জেলাশাসক এর কাছে গিয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দেন এবং সেখান থেকে বেরিয়ে তিনি সাংবাদিকদের জানান যে আসানসোল এর মানুষ বিজেপির সাথে আছে আর বিপুল ভোটে তিনি জয়ী হবেন।

 তাছাড়া প্রধান বিরোধী পক্ষ তৃণমূল এর প্রার্থীকে কটাক্ষ করে বলেন মুখমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির কাছ থেকেই বহিরাগত শব্দটা শিখেছি তাই এখন তিনি নিজেই বহিরাগত দের এনে এখানে প্রার্থী করেছেন কারন পশ্চিমবঙ্গে কোন প্রার্থী তিনি খুঁজে পেলেন না। মিস্টার শত্রুঘ্ন সিনহা সিনেমার পর্দায় ঠিক আছে কারন তিনি রাজনীতির বিষয়ে কি বোঝেন ? যিনি এতবার করে দল পরিবর্তন করেন বিজেপি থেকে সমাজবাদী কংগ্রেস এখন তৃণমূল পরে আবার কোথায় যাবেন তার ঠিক নেই। তাই মানুষ ওনাকে  বিশ্বাস করবে না, আর প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি চেয়েছিলেন বাংলার মেয়ে চাই তাই আমি এই জেলার সকলের ঘরের মেয়ে এই এলাকার সমস্ত কিছু চেনা। তিনিতো এখানকার ১০  জন তৃণমূল কর্মীর নাম বলতে পারবেন না। প্যারাসুট করে এসেছেন আবার চলে যাবেন। আমি সুখে দুঃখে আপনাদের পাশেই থাকব। তাই এই জয় আপনাদের জয়, বিজেপির জয় ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জয় ।