চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

টাউন সার্ভিস বাসে কেপমারি, ২৫ হাজার টাকা উদ্ধার, ধৃত অবাঙালি মহিলা

 


টাউন সার্ভিস বাসে কেপমারি, ২৫ হাজার টাকা উদ্ধার, ধৃত অবাঙালি মহিলা 


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : কোভিড বিধিনিষেধের মাঝে ভর সন্ধ্যায়  টাউন সার্ভিস বাসে  এক ব্যক্তির ব্যাগ থেকে ২৫ হাজার টাকা কেপমারির ঘটনায় আলোড়ন ছড়িয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে শহর বর্ধমানে। ঘটনার বিবরণে প্রকাশ, এদিন নিজামুদ্দিন মন্ডল নামে এক ব্যাক্তি নিজের কাজে কুসুমগ্রাম থেকে বর্ধমানে আসেন। কার্জনগেটে আসবেন বলে স্টেশন থেকে টাউন সার্ভিস বাসে ওঠেন। তাঁর সঙ্গে ছিল একটি ব্যাগ। যার মধ্যে ছিল  ব্যবসার ২৫ হাজার টাকা। নিজামুদ্দিন বাবু বলেন, বাসে ওঠার পরই এক অবাঙালি মহিলা তাঁর গা ঘেঁষে দাঁড়িয়ে ছিল। কার্জন গেটে বাস থেকে নামতেই তিনি লক্ষ্য করেন তাঁর সঙ্গে থাকা ব্যাগের চেন কাটা। এমনকি ব্যাগের ভিতরে থাকা টাকাও গায়েব। তখনই নিজামুদ্দিন বাবুর সন্দেহ হয় ওই মহিলাকে। এরপর রাস্তার এদিক ওদিক ওই মহিলাকে খুঁজতেই  রাস্তার উল্টোদিকে ওই মহিলাকে দেখতে পান। তিনি ওই মহিলার দিকে ছুটে যেতেই সেই মহিলা টাকার বান্ডিল রাস্তায় ফেলে দেয়। এবং পালানোর চেষ্টা করে।

 কয়েকজনের সহযোগিতায় ওই মহিলাকে আটক করে টাকা চুরির কথা বারবার জানতে চাওয়া হলে তিনি কৃত কর্মের কথা অস্বীকার করেন। এরপর স্থানীয় মানুষের পরামর্শে নিজামুদ্দিন মন্ডল বর্ধমান থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে ওই অবাঙালি মহিলাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ জানিয়েছে,  মহিলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর সে তার দোষ স্বীকার করেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধৃত মহিলার নাম নিতু পারমা। ওই মহিলা পশ্চিম বর্ধমান জেলার পানাগড়ে থাকে। তাঁর আসল বাড়ি গুজরাটের মেন্দাবাদে। 



Post a Comment

0 Comments