Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

সিভিক ও ভিপি সহ পুলিশ কর্মীদের প্রাথমিক চিকিৎসার প্রশিক্ষণ


 

সিভিক ও ভিপি সহ পুলিশ কর্মীদের প্রাথমিক চিকিৎসার প্রশিক্ষণ 


প্রদীপ কুমার মন্ডল, খণ্ডঘোষ, ১৮ জানুয়ারি : সিভিক ভলেন্টিয়ার, ভিলেজ পুলিশ সহ পুলিশকর্মীদের প্রাথমিক চিকিৎসার প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করা হয় খন্ডঘোষে।  সার্কেল ইন্সপেক্টর সি (সদর) রজত কান্তি পাল এর ভাবনা এবং খণ্ডঘোষ থানার অফিসার ইনচার্জ পুষ্পেন্দু জানার উদ্যোগে খণ্ডঘোষ থানা সংলগ্ন একটি সভাকক্ষে এই শিবির অনুষ্ঠিত হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা প্রশিক্ষণ শিবিরে উপস্থিত ছিলেন এসডিপিও সদর সাউথ সুপ্রভাত চক্রবর্তী, সিআইসি (সদর) রজত কান্তি পাল, খণ্ডঘোষ থানার অফিসার ইনচার্জ পুষ্পেন্দু জানা সহ খণ্ডঘোষ ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক শুভেন্দু ঘোষ এবং সি এইচ ও লিপিকা নায়েক সহ খণ্ডঘোষ থানার সমস্ত আধিকারিক, পুলিশকর্মী, ভিলেজ পুলিশ ও সিভিক ভলেন্টিয়াররা। 

এসডিপিও বলেন রাস্তায় পথদুর্ঘটনা হলে কিভাবে সেই আহত বা গুরুতর আহত মানুষকে বা মানুষদের প্রাথমিক চিকিৎসা করতে হবে যাতে করে কারো প্রাণ সংশয় না হয় সেই বিষয়গুলি নিয়ে আজকে মূলত প্রশিক্ষণ দেওয়া হল। রাস্তায় পুলিশকর্মীরা শুধুমাত্র যানবাহন পরিচালনার ক্ষেত্রেই কর্তব্যরত অবস্থায় থাকেন না যেকোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটলে সেই রোগীকে উদ্ধার করে নিকটবর্তী হাসপাতালে পৌঁছানোর দ্রুত ব্যবস্থাও করেন তারা। সেই বিষয়কেই মাথায় রেখে সিআইসি সদর রজত কান্তি পাল এর ভাবনাচিন্তা খণ্ডঘোষ থানার অফিসার ইনচার্জ পুষ্পেন্দু জানার উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান সকলে। মঙ্গলবারের এই প্রাথমিক চিকিৎসা প্রশিক্ষণে যারা ট্রেনার হিসেবে ছিলেন তারা প্র্যাকটিক্যাল এর মাধ্যমে প্রশিক্ষণ করান। 

সিআইসি বলেন দুর্ঘটনায় আহত মানুষরা দ্রুত চিকিৎসার পরিষেবা পেতে এবং পরিষেবা পাওয়ার আগে অনেকটাই শারীরিক সুস্থ করে তোলার জন্যই আজকের এই প্রাথমিক চিকিৎসা প্রশিক্ষণ শিবির। খণ্ডঘোষ থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন খণ্ডঘোষ থানার অন্তর্গত বিভিন্ন এলাকার যেসব মানুষ পুলিশকে বিভিন্ন রকম কাজে সহযোগিতা করেন তাদের এবং উপস্থিত সিভিক ভলেন্টিয়ার ও ভিলেজ পুলিশদের হাতে একটি করে ফাস্টেড বক্স তুলে দেওয়া হয়।