চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

পশ্চিমবঙ্গে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত করোনা বিধিনিষেধ বলবৎ


 

পশ্চিমবঙ্গে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত করোনা বিধিনিষেধ বলবৎ 

ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : রাজ্যে কোভিড সংক্রমণ বাড়ছে। পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে সোমবার থেকে কিছু কিছু বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হতে পারে বলে আগেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  রবিবার এ নিয়ে নবান্নে বৈঠক করেন স্বাস্থ্য দফতরের কর্তারা। সেখানেই সম্ভাব্য বিধিনিষেধ নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

আজ রাজ্যে কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী বলেন, সরকারি নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়েছে। ৩ জানুয়ারি থেকে ৫০ শতাংশ লোক নিয়ে সভা-বৈঠক-সমাবেশ করা যাবে। রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত জারি থাকবে বিধিনিষেধ। মাস্ক না পরলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মোট আসনের ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়ে চালানো যাবে সিনেমা হল, থিয়েটার। রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে। ৫০ শতাংশ লোক নিয়ে খোলা রাখা যাবে শপিং মল এবং বাজার। রাত ১০টার পর আর খোলা যাবে না শপিং মল, বাজার। সমস্ত সরকারি অফিসে ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ করতে হবে। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রেও সেই নিয়ম মানতে হবে। ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলবে মেট্রো ও লোকাল ট্রেন। সন্ধ্যা ৭টার পর থেকে বন্ধ থাকবে সমস্ত লোকাল ট্রেন। তবে চলবে দূরপাল্লার ট্রেন। বন্ধ থাকবে সুইমিং পুল, স্পা, জিম, বিউটি পার্লার সেলুন। বন্ধ থাকবে সমস্ত রকম বিনোদন পার্ক, চিড়িয়াখানা, পর্যটনকেন্দ্র। সোমবার থেকে রাজ্যের সব স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকবে। ৩ জানুয়ারি থেকে ব্রিটেনের কোনও বিমানকে কলকাতায় ঢুকতে দেওয়া হবে না।

আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এই নির্দেশিকা বলবৎ থাকবে ‌বলে রাজ্যের মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী জানিয়েছেন। জেলা প্রশাসন, পুলিশ কমিশনারেট এবং স্থানীয় কর্তৃপক্ষ কঠোরভাবে নিশ্চিত করবে উল্লিখিত নির্দেশাবলী। বিধিনিষেধ কোনভাবে লঙ্ঘন করলে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্ট, 2005 এর বিধান অনুসারে এবং ভারতীয় দন্ডবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


Post a Comment

0 Comments