চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

পর্যটকদের জন্য সুখবর, শীতের শুরুতে সেজে উঠেছে মাইথন


 

পর্যটকদের জন্য সুখবর, শীতের শুরুতে সেজে উঠেছে মাইথন




কাজল মিত্র, বরাকর : পর্যটকদের জন্য সুখবর। এবার মাইথন ব্যারেজ জলাধারে এক সঙ্গে অনেকে নৌকাবিহারের মাধ্যমে সৌন্দর্য আহরণ করতে  পারবেন। বৃহস্পতিবার মাইথন ঘাটে ফিতে কেটে বড় নৌকা ও স্পিড বোর্ডের শুভ উদ্বোধন করেন বারাবনির বিধায়ক তথা তৃণমূল কংগ্রেসের পশ্চিম বর্ধমান জেলা সভাপতি বিধান উপাধ্যায়। উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ মহম্মদ আরমান,  সালানপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ফাল্গুনী কর্মকার ঘাসি, সহ- সভাপতি বিদ্যুৎ মিশ্র, দেন্দুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান সিমুলা মারান্ডি, উপ প্রধান রঞ্জন দত্ত প্রমুখ। 

উল্লেখ্য মাইথন পশ্চিমবঙ্গ ও ঝাড়খণ্ড সীমান্তে অন্যতম এক সুন্দর পর্যটন কেন্দ্র। আর এই  সৌন্দর্য দেখতে পাওয়া যায় নৌকা বিহারে। তাই নিজেদের স্বর্নিভর করতে এবং নৌকা বিহারকে আরো সুন্দর করতে এবার থার্ড ডাইক তাল তলা নৌকা ঘাটে ৬ টি গোষ্ঠী দ্বারা ব্যাঙ্ক থেকে প্রায় ৯ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়ে নতুন একটি বড় নৌকা কেনে। যাতে এক সঙ্গে ৩০ জন যাত্রী নৌকা চড়ে ভ্রমণ করতে পারবে। তাছাড়া ছয় সিটের একটি স্পিড বোর্ড কলকাতা থেকে ক্রয় করা হয় ও ৮৬ টি পুরনো নৌকা রঙ ও বিভিন্ন কাজ করে সংস্কার করা হয়। ফলে নতুন ভাবে সেজে উঠেছে মাইথনের তালতলা নৌকা ঘাট। নবরূপে সজ্জিত এই ঘাটের উদ্বোধন করেন বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়। এদিন বিধায়ক বিধানবাবু বলেন মাইথনের অন্যতম সৌন্দর্য স্থান হচ্ছে তালতলা নৌকা ঘাট।এদের উদ্যোগকে ধন্যবাদ জানাই এত সুন্দর ভাবে নৌকা ঘাট কে সাজিয়ে রেখেছে তাছাড়া ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নিয়ে তারা বড় নৌকা ও স্পিড বোর্ডের ব্যবস্থা করেছে  এর থেকে তাদের সবার অর্থ উপার্জন হবে এবং মাইথনের সৌন্দর্য আরো বৃদ্ধি পাবে।

এই নিয়ে নৌকাচালক সাবির  আনসারী জানান যে রিভার, আর্থ, স্কাই, স্টার, ল্যান্ড ও মুন এই ছয়টি গোষ্ঠী মিলে গ্রামীণ ব্যাঙ্ক থেকে প্রায় ৯ লক্ষ টাকা ঋণ নেওয়া হয়েছে। একটি বড় নৌকা এবং একটি স্পিড বোর্ড কেনা হয়। পাশাপাশি পুরনো ৮৬ টি নৌকা সংস্কার করা হয়। এই উদ্যোগের কারণ আমরা নৌকার উপর ভরসা করে আমার পরিবার চালনা করি। নুতুন করে তালতলা নৌকা ঘাটের সৌন্দর্য বাড়াতে সবাই মিলে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি আলাদা কিছু করার। যাতে মাইথনে পর্যটনরা এলে অন্তত একবার নৌকায় ভ্রমণ করতে পারেন। তাছাড়া এদিন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা মনোজ তেওয়ারী, মবিন খান, কাঞ্চন লাহা,বিমল গড়াই সহ সমস্ত নৌকাচালকরা।


Post a Comment

0 Comments