চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

ভুবন বিখ্যাত বাদাম বিক্রেতা পুলিশের দ্বারস্থ, কিন্তু কেন ?


 

ভুবন বিখ্যাত বাদাম বিক্রেতা পুলিশের দ্বারস্থ, কিন্তু কেন ? 


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : বীরভূম জেলার দুবরাজপুর ব্লকের অন্তর্গত লক্ষ্মীনারায়ণপুর পঞ্চায়েতের কুড়ালজুড়ি গ্রামের বাসিন্দা কাঁচা বাদাম বিক্রেতা আটপৌরে মানুষটি এখন সেলিব্রিটি। তিনি ভুবন বাদ্যকর। "কাঁচা বাদাম" গান গেয়ে ভুবন বাদ্যকর এখন ভুবন বিখ্যাত। অথচ এই মানুষটিই থানায় গিয়ে পুলিশের সহায়তায় চাইলেন। কিন্তু কেন ?

আসলে ভুবন বাদ্যকরের 'কাঁচা বাদাম' গান ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। শুধু ভাইরাল নয় সেই গানের বিভিন্ন রিমেক তৈরি করে অনেকে আবার সাড়া ফেলে দিয়েছেন। ডিজে থেকে শুরু করে টিকটক,শর্ট ভিডিও কি হচ্ছে না এই মানুষটিকে নিয়ে। গুগলে ভুবন বাদ্যকর লিখে সার্চ দিলেই ছবিতে ছয়লাপ। ভারত ছাড়িয়ে বাংলাদেশেও ভুবন বাদ্যকরের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। কাঁচা বাদাম গান  গেয়েছেন তিনি, কিন্তু পাচ্ছেন না তাঁর প্রাপ্য টাকা। ইউটিউবাররা সে গান রেকর্ডিং করে সোশ্যাল মাধ্যমে রোজগার করছেন লক্ষ লক্ষ টাকা। এই অভিযোগ নিয়েই এবার বীরভূমের দুবরাজপুর থানার  দ্বারস্থ হলেন কাঁচা বাদাম বিক্রেতা ভুবন বাদ্যকর। 

ভুবনবাবুর দাবি, তাঁর এই গান ইতিমধ্যে সোশ্যাল  মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ইউটিউবের মাধ্যমে এই গান গেয়ে অনেক মানুষ টাকা রোজগারও করছেন, কিন্তু তিনি কিছুই পাচ্ছেন না। ভুবনবাবু জানান, তাঁর গান ভাইরাল হওয়ায় প্রচুর মানুষ প্রত্যেকদিন তাঁর বাড়িতে ভিড় করছেন। সকলে তাঁর গানের ভিডিও রেকর্ডিং করছেন। আর সেগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড দিয়ে টাকাও আয় করছেন, কিন্তু তিনি কিছুই পাচ্ছেন না। এমনকি ইউটিউবেও ওই গানে তাঁর কপিরাইটই দেখাচ্ছে। কিন্তু তিনি নিজে কোনও গানই আপডেট করেননি। তাই তাঁর দাবি, পুলিশ ঘটনার তদন্ত করুক এবং তাঁর প্রাপ্য টাকাটুকু তাঁকে পেতে সাহায্য করলে তিনি সামাজিক ও অর্থনৈতিক ভাবে উপকৃত হবেন।


Post a Comment

0 Comments