চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

বিরসা মুন্ডার জন্মবার্ষিকী পালন


 

বিরসা মুন্ডার জন্মবার্ষিকী পালন 

অতনু হাজরা, বর্ধমান ও জামালপুর : স্বাধীনতা সংগ্রামী বিরসা মুন্ডার জন্মবার্ষিকী পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে বিরষা মুন্ডার  জন্মদিন সমস্ত সরকারি প্রতিষ্ঠানে পালিত হচ্ছে। সেই মোতাবেক আজ পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদ বিরষা মুন্ডার প্রতি শ্রদ্ধা জানায়। উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া, সহ-সভাধিপতি দেবু টুডু, মেন্টর উজ্জ্বল প্রামাণিক, কর্মাধ্যক্ষ বাগবুল ইসলাম, মিঠু মাঝি, জেলা পরিষদের হেব এ্যাসিস্ট্যান্ট কেশব চন্দ্র চৌধুরী সহ অন্যান্যরা।

এদিন জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতি বিরষা মুন্ডার জন্মতিথি পালন করলো। জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির মিটিং হলে একটি মনোজ্ঞ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে যথাযত মর্যাদায় বিরষা মুন্ডার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বর্ধমান সদর দক্ষিণের মহকুমা শাসক কৃষ্ণেন্দু কুমার মন্ডল, জামালপুরের বিধায়ক অলোক কুমার মাঝি,  পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি  মেহেমুদ খান, বিডিও শুভঙ্কর মজুমদার, জেলা পারগনার পূর্ব বর্ধমান জেলা পৃথ্বী মুর্মু, জয়েন্ট বিডিও গৌতম কুমার দত্ত, সহ সভাপতি দেবু হেমব্রম, পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ ভুতনাথ মালিক সহ তারক টুডু, রবিন মান্ডি সহ অন্যান্যরা। বিরসা মুন্ডার  ছবিতে মাল্যদান করে অনুষ্ঠানের শুরু হয়। শুরুতেই এত সুন্দর একটি আদিবাসী ভাষায় গান গাওয়া হয় যা সকলের চোখে জল এনে দেয়। আদিবাসী সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে অনেকেই বিরসা মুন্ডার জীবনের উপর আলোচনা করেন। তাঁরা প্রত্যেকেই রাজ্য সরকারের প্রশংসা করেন, এইভাবে বিরসা মুন্ডার জন্মদিনকে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য। বক্তব্য রাখতে গিয়ে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান ও বিধায়ক অলোক কুমার মাঝি রাজ্য সরকারের এই আদিবাসী সম্প্রদায়ের জন্য ভূমিকার কথা তুলে ধরেন। রাজ্য সরকার আজ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দিয়ে এই সম্প্রদায়ের মানুষদের এগিয়ে আনার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এস ডি ও কৃষ্ণেন্দু কুমার মন্ডল সুন্দর ভাবে বিরসা মুন্ডার জীবনের উপর নানা অজানা দিকের উপর আলোকপাত করেন। ইতিহাসের পাতার বাইরেও অনেক বিষয় অর্থাৎ তাঁর জীবনের উপর আলোচনা করেন যাতে অনেকেই সমৃদ্ধ হন। অনেক মানুষই উপস্থিত ছিলেন এই অনুষ্ঠানে।


Post a Comment

0 Comments