চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

বিষ্ণুপুর প্রিমিয়াম লীগে চ্যাম্পিয়ন হোটেল সোনামনি দীঘা


 

বিষ্ণুপুর প্রিমিয়াম লীগে চ্যাম্পিয়ন হোটেল সোনামনি দীঘা 


সেখ সামসুদ্দিন, মেমারি :  পূর্ব বর্ধমান জেলার  মেমারির নিমো ১ অঞ্চলের বিষ্ণুপুর যুব সংঘ ও পাঠাগার  প্রিমিয়াম লীগ ২০২১ ক্রিকেট প্রতিযোগিতার আয়োজন করে ছিল। শনিবার সেই লীগের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। চ্যাম্পিয়ন হয়েছে হোটেল সোনামনি দীঘা। উল্লেখ্য গত ৫ সেপ্টেম্বর এই প্রিমিয়াম লীগের সূচনা করেছিলেন মেমারির বিধায়ক মধুসূদন ভট্টাচার্য। সেদিন সূচনায় খেলেছিল বিষ্ণুপুর প্রাঞ্জল একাদশ ও মাতৃ একাদশ ধাত্রীগ্রাম। প্রাঞ্জল একাদশে হেভিওয়েট খেলোয়ার টুটু সাহা এবং মাতৃ একাদশে হেভিওয়েট খেলোয়ার সাগর আলি খেলেছেন।

 শনিবার সকালে সেমিফাইনালে ১২ ওভারের খেলা হয়। সেমিফাইনালে প্রথম দুই টিম ফাইভস্টার একাদশ ও সানা গারমেন্টস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। ১২ ওভারে ১২৬ রান করে, সানা গারমেন্টস শেষ বলে ৬ মেরে ১৩০ রান করে ফাইনালে যায়। সানা গারমেন্টসের প্রিয়ব্রত কর্মকার ম‍্যান অব দ‍্য ম‍্যাচ হন। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে হোটেল সোনামনি দীঘা ও মন্দিরা একাদশ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। মন্দিরা একাদশ সাত ওভারে  ৮১ রান করে অল আউট হয়ে যায়।  পরিবর্তে হোটেল সোনামনি দীঘা ৮ ওভার ২ বলে ৮২ রান করে ফাই নালে ওঠে। হোটেল সোনামনি দলের ম‍্যাচের সেরা হয় জয়ন্ত সিকদার। দ্বিতীয় পর্বে চূড়ান্ত খেলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হোটেল সোনামনি দীঘা বনাম সানা গারমেন্টস। টসে জয়ী হয়ে হোটেল সোনামনি ফিল্ডিং নেয়। সানা গারমেন্টস ১০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১০৪ রান করে।

 হোটেল সোনামনি দীঘা ১০৫ রানের লক্ষ‍্যমাত্রা নিয়ে ব‍্যাটিং শুরু করে ৮ ওভার ৫ বলে ৪ উইকেট হারিয়ে চ‍্যাম্পিয়ন হয়। চ‍্যাম্পিয়ন টিমের হাতে ২০ হাজার টাকা ও চ‍্যাম্পিয়ন ট্রফি তুলে দেওয়া হয় এবং রানার্স টিমের হাতে ১৬ হাজার টাকা ও ট্রফি তুলে দেওয়া হয়। সিরিজের সেরা খেলোয়ার খন্দেকার শরিফ আহমেদ ও চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় সেরা খেলোয়ার হন জয়ন্ত সিকদার। এদিন মাঠে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন খেলোয়ার চন্দন মজুমদার, টেনিস খেলোয়ার সাগর আলি, প্রাক্তন ফুটবল খেলোয়ার উৎপল মুখার্জী, উদ‍্যোক্তা বিশ্বজিৎ বিশ্বাস ও গনেশ রায়, গোবিন্দ ব‍্যাপারি সহ ক্লাব পাঠাগারের সভাপতি, সম্পাদক ও সদস‍্যবৃন্দ সহ বিশিষ্ট ব‍্যক্তিবর্গ।

Post a Comment

0 Comments