চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

শারদ সম্মান : ১৬ টি পুজো কমিটির নাম ঘোষণা


 

শারদ সম্মান : ১৬ টি পুজো কমিটির নাম ঘোষণা 


অতনু হাজরা, জামালপুর :  পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরে পুজো কমিটিগুলির সঙ্গে প্রশাসনিক মিটিং করার সময় জামালপুর ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান ঘোষণা করেছিলেন এবারের পুজোয় ২৪৩ টি বারোয়ারী ,ক্লাব ও পুজোকমিটি গুলির মধ্যে পরিবেশ, প্রতিমা, মণ্ডপসজ্জা ও আলোক সজ্জার উপর প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানাধিকারীদের পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে বিশেষ ভাবে পুরস্কৃত করা হবে। সেই মোতাবেক আজ দশমীর দিনে জামালপুরে ব্লক অফিস থেকে যুগ্ম সমষ্টি উন্নয়ন অধিকারিক গৌতম কুমার দত্তকে  সঙ্গে নিয়ে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান সেই চারটি বিভাগের উপর প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানাধিকারী মোট ১৬ টি পুজো কমিটির নাম ঘোষণা করলেন। পরিবেশ  ভাবনায় প্রথম নেতাজি অ্যাথলেটিক ক্লাব, জারগ্রাম বামুনপাড়া দ্বিতীয় ও যুগ্মভাবে তৃতীয়  হয়েছে বিষ্ণুবাটি মহিলা সংঘ ও চকদিঘী মিলন সংঘ। প্রতিমায় প্রথম কাঠুরিয়া পাড়া বারোয়ারী। কালারাঘাট ব্যবসায়ী সমিতি ও জৌগ্রাম প্রভাত সংঘ যুগ্মভাবে দ্বিতীয় ও বাদপুর নেতাজি সংঘ তৃতীয় স্থান পায়। আলোকসজ্জায় প্রথম স্থান লাভ করে হালারা সার্বজনীন , যুগ্মভাবে দ্বিতীয় হয় জামালপুর গঞ্জবারোয়ারী ও কিশলয় সমিতি এবং চৌবেরিয়া বাজার কমিটি তৃতীয় হয়। মণ্ডপ সজ্জায় যুগ্ম ভাবে প্রথম হয়েছে জৌগ্রাম কলুপুকুর সার্বজনীন ও কালারাঘাট ব্যবসায়ী সমিতি, দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে কাঁসারা বারোয়ারী ও তৃতীয় স্থান লাভ করেছে মসাগ্রাম স্টেশন বাজার বারোয়ারী। মেহেমুদ খান ও গৌতম বাবু জানান সঠিক সময়ে এঁদের খবর দেওয়া হবে। বিজয়া সম্মেলনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে তাঁদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে। শুধু তাই নয় ২৪৩ টি পুজো কমিটিকেই ডাকা হবে ওই অনুষ্ঠানে সকলকেই একটি করে শংসাপত্র দেওয়া হবে।


Post a Comment

0 Comments