চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

বাংলা ভাগের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার বাংলা পক্ষ, পূর্ব বর্ধমানের বুদবুদে মিছিল ও সভা


 

বাংলা ভাগের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার বাংলা পক্ষ, পূর্ব বর্ধমানের বুদবুদে মিছিল ও সভা



ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : বাংলা ভাগের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে বাংলা পক্ষ'র পূর্ব বর্ধমান জেলার সম্পাদক জুয়েল মল্লিকের নেতৃত্বে বুদবুদে মহামিছিল ও সভা হল। গলসী বিধানসভার সহযোদ্ধা রণ ভট্টাচার্য, অর্ণব দাসের উদ্যোগে রবিবার মিছিল আয়োজিত হয়। এদিনের মিছিলে উপস্থিত ছিলেন বাংলা পক্ষর সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক গর্গ চট্টোপাধ্যায়, শীর্ষ পরিষদ সদস্য কৌশিক মাইতি, মনোজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়, ডাঃ অরিন্দম বিশ্বাস, করবী রায়, মনন মন্ডল, পূর্ব বর্ধমানের জেলা সম্পাদক জুয়েল মল্লিক, সহ-সম্পাদক অসিত সাহা, পশ্চিম বর্ধমান, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা, হুগলীর জেলার সম্পাদক সহ অন্যান্য নেতৃত্ব। 

মিছিলের মূল বক্তব্যই ছিল, রক্ত দিয়ে হলেও বাংলা ভাগ রুখবে বাঙালি। বাংলা পক্ষর নেতৃত্বে বাঙালি কোচবিহার থেকে দীঘা পর্যন্ত লড়ছে। এবং বাংলার সমস্ত চাকরি-কাজে-ব্যবসায় ৯০ শতাংশ ভূমিপুত্র সংরক্ষণের জোরালো দাবিও ওঠে মিছিল ও সভা থেকে। 

সম্পাদক জুয়েল মল্লিক বুদবুদ সহ সমগ্র পূর্ব-বর্ধমান জেলা জুড়ে এই আন্দোলনকে আরও তীব্রতর করার ডাক দেন। 

কৌশিক মাইতি জানান, "যারা বাংলা ভাগ করতে আসবে, তাদের বাংলা ছাড়া করা হবে। এছাড়া এলাকার সমস্ত রাইস মিলে, শিল্পাঞ্চলে বাঙালির কাজ, চাকরি, টেন্ডারের দাবিতে বাংলা পক্ষ শেষ পর্যন্ত লড়বে।" 

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক গর্গ চট্টোপাধ্যায় জানান, "আজ রণ, অর্ণব রা গলসী বিধানসভায় বাঙালিকে এক করছে নিজের অধিকারের দাবিতে। আজ বুদবুদের মাটিতে বাঙালি যেভাবে বাংলা ভাগের বিরুদ্ধে গর্জন করল, তাতে বাঙালি শত্রুরা বার্তা পেয়ে গেছে। ওরা কান খুলে শুনে রাখুক, বাঙালি যেভাবে জেগেছে, হিন্দি সাম্রাজ্যবাদের দিন ঘনিয়ে আসছে। বাঘের থাবা পড়লে শত্রুরা বুঝে যাবে। বর্ধমানের ধান ও কয়লা দুই বাঙালির দখলে রাখতে হবে।"

Post a Comment

0 Comments