Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

পুলিশের বড়সড় সাফল্য রূপনারায়ণপুরে


 

পুলিশের বড়সড় সাফল্য রূপনারায়ণপুরে


কাজল মিত্র, সালানপুর : পশ্চিম বর্ধমান জেলার সালানপুর থানার রূপনারায়ণপুর এলাকায় বেশ কয়েকদিন ধরে নানারকম চুরির ঘটনা বেড়েই চলছিল। আর এই চুরির মাঝেই রূপনারায়ানপুর পুলিশ বড়সড় সাফল্য অর্জন করলেন।রূপনারায়ানপুর এলাকার বিভিন্ন বাড়ি থেকে চুরির ঘটনার অভিযোগ উঠে আসছিল। বেশির ভাগই বন্ধ বাড়ি থেকে তালা ভেঙে বাড়ির গহনা ও নগদ চুরি সহ বাড়ির জানালা থেকে মােবাইল চুরি কখনাে আবার রাস্তায় একা মহিলার গলা থেকে হার ছিনতাই এর ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। যার ফলে সালানপুর থানার রূপনারায়ানপুর ফাড়ির পুলিশ বিষয়টি নিয়ে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে একটি বিশেষ দল তৈরি করে এই দুষ্কৃতি দলকে ধরার জন্য। প্রায় দেড় বছর থেকে এই দুষ্কৃতীদের ধরার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল পুলিশ। অবশেষে বড়সড় একটি চোরের গ্যাং প্রকাশ্যে আসে। পুলিশ সূত্রে জানা যায় যে বহুদিনের চেষ্টায় চোরা কারবারি চক্রের চন্দন রুদ্র ও এস কে রাজকুমার নামে দুই দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করতে সমর্থ হয় রূপনারায়নপুর পুলিশ।



 তারা সালানপুর থানার জেমারী গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা যায়। তাদের কাছ থেকে বেশ কিছু মূল্যবান সামগ্রী পাওয়া গেছে যার মধ্যে একটি এলসিডি টিভি, একটি গিটার, দুটি হোম থিয়েটার, একটি সিসিটিভি ডিভিয়ার, দুটি ল্যাপটপ, আটটি এন্ড্রয়েড মোবাইল, একটি টুলুপাম্প, কিছু বাসনপত্র ও একটি স্প্রে মেশিন সহ দুটি সোনার বালা, দুটি সোনার গলার হার, একটি সোনার চেন, একটি নাখের নদ, একটি আংটি ও কানের সোনার গহনা সহ কয়েক লক্ষ টাকার সোনার গহনা। তাদের কাছ থেকে এই সমস্ত চোরাই সামগ্রী উদ্ধার করতে সমর্থ হয়েছে পুলিশের তদন্তকারী দল। ২৫ জুলাই ধৃত দু'জনকে আসানসােল আদালতে তুলে পাঁচ দিনের জন্য পুলিশি হেফাজতে নিয়েছিল রূপনারায়ণপুর পুলিশ। পুলিশ অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করে তাদের কাছে এই সকল চুরি যাওয়া জিনিসের খোঁজ পায়। তারা জানায় যে এগুলি তারা বিভিন্ন বন্ধ ঘর থেকে চুরি করে সেগুলি অল্প দামে জেমারি ও আশেপাশের এলাকায় অত্যন্ত অল্প দামে বিক্রি করে দিতাে। তবে পুলিশ এখনো পর্যন্ত এদের সাথে আরো কেও জড়িত আছে কিনা সেটা তল্লাশি শুরু করেছে। সেই জন্য তাদের পুনরায় পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।