চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

অনলাইনে প্রতারনার শিকার এক যুবতী


 

অনলাইনে প্রতারনার শিকার  এক যুবতী


কাজল মিত্র, আসানসোল : দুদিন আগেই বিভিন্ন হোম ডেলিভারি অনলাইন কোম্পানির নাম করে প্রতারণা চক্রের আট পান্ডাকে গ্রেপ্তার করেছে আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ। এই চক্রের সদস্যরা বিভিন্ন অনলাইন কেনাকাটা সংস্থার গ্রাহকদের সন্ধান করে তাদের বিভিন্ন ভাবে প্রতারণা জাল ছড়িয়ে দেয় আসানসোল শিল্পাঞ্চল জুড়ে। আর সেই জালে পড়ে লক্ষ লক্ষ টাকা খোয়াচ্ছেন সাধারণ মানুষ। ফের এমনই অনলাইন প্রতারণার শিকার হলেন আসানসোল গোপালপুরের এক যুবতী। অভিনব কায়দায় দশমিনিট এর মধ্যে তার অ্যাকাউন্ট থেকে দফায় দফায় তুলে নেওয়া হয়েছে ৬০ হাজার টাকা। ওই যুবতী এবিষয়ে আসানসোল সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। আসানসোলের গোপালপুরের বাসিন্দা অভিশ্রুতি মাজির অভিযোগ বুধবার একটি ফোন আসে তার কাছে। তিনি একটি অনলাইন কোম্পানির থেকে কিছু কেনাকাটা করেছিলেন। সেই সামগ্রী তার বাড়িতে পৌঁছানোর কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই সেই পার্সেল নেওয়ার জন্য ফোন করা হয় তাকে। যেহেতু তার অনলাইনে কেনা জিনিস সেদিনই তার বাড়িতে পৌঁছানোর কথা ছিল, ঠিক সেই সময়ই কোম্পানির নাম করে তাকে ফোন করা হয় এবং মোবাইলে একটি অ্যাপস ডাউনলোড করতে বলা হয়। এর পরেই তিনি এনিডেক্স বলে একটা অ্যাপস ডাউনলোড করেন। এরপর থেকে প্রায় ৬০ হাজার টাকা তার অ্যাকাউন্ট থেকে দফায় দফায় কেটে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ।


পুলিশ সূত্রে জানা যায় অনলাইন কেনাকাটার জন্য যেসব সংস্থা গুলি রয়েছে সেইসব সংস্থাগুলির কারা গ্রাহক রয়েছেন প্রতারকরা সেই সব গ্রাহকদের ডিটেলস সংগ্রহ করছে পরে সেই সব গ্রাহকদের বাড়িতে বিভিন্ন ধরনের লটারি পাওয়ার চিঠি পাঠাচ্ছে অথবা তাদের সরাসরি ফোন করে সেই কোম্পানি জিনিস ডেলিভারি দেওয়ার নাম করে প্রতারণার ফাঁদে ফেলছে সাধারণ গ্রাহকদের। স্বাভাবিকভাবেই এলাকার মানুষের মধ্যে অনলাইন কেনাকাটা ও সেই সব সামগ্রী বিভিন্ন বাড়িতে ডেলিভারি নেওয়ার ক্ষেত্রে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। তবে আসানসোল দুর্গাপুর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ প্রতারকদের ধরতে সচেষ্ট রয়েছে।




Post a Comment

0 Comments