চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

রাষ্ট্রীয় ব্যাঙ্ক বেসরকারীকরণের বিরুদ্ধে


 

রাষ্ট্রীয় ব্যাঙ্ক বেসরকারীকরণের বিরুদ্ধে


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : রাষ্ট্রীয় ব্যাঙ্ক গুলিকে বেসরকারিকরণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসার্স কনফেডারেশন। ব্যাঙ্ক বেসরকারীকরণের কুফল সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করতে পথে নেমেছে কনফেডারেশন এর সদস্যরা। সংগঠনের পক্ষ থেকে ব্যাঙ্ক বেসরকারিকরণের বিরুদ্ধে জনমত গড়ে তুলতে স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযানে নেমেছেন। শুক্রবার সকালে বর্ধমান স্টেশনে স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযানে ছিলেন ব্যাঙ্ক অফিসার্স সংগঠনের সদস্য শুভেন্দু সাঁতরা ও সুমন চৌধুরী। ব্যাঙ্ক বেসরকারীকরণ হলে সাধারণ মানুষ কি রকম সমস্যায় পড়বেন সেই বিষয়গুলো তারা মাইকিং এর মাধ্যমে তুলে ধরেন। 


অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসার্স কনফেডারেশনের পশ্চিমবঙ্গ শাখার সম্পাদক সঞ্জয় দাস এবং সভাপতি শুভজ্যোতি চট্টোপাধ্যায় লিফলেট বিবৃতিতে জানিয়েছেন, "ভারতীয় জনগণকে সুদখোর মহাজনদের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য এবং সকলকে ব্যাঙ্কিংয়ের সুবিধা দেওয়ার জন্য  ১৯৬৯ সালের ১৯ জুলাই ব্যাঙ্কগুলিকে রাষ্ট্রীয়করণ করা হয়েছিল।  আর এটি ছিল দেশের জনগণের প্রথম অর্থনৈতিক স্বাধীনতা। কারন একটা সময়ে বেসরকারি ব্যাঙ্কগুলো প্রতিনিয়ত দেউলিয়া হয়ে যাচ্ছিল এবং সেজন্য সাধারণ মানুষকে তাদের উপার্জিত অর্থ হারাতে হচ্ছিল। ব্যাঙ্ক জাতীয়করণের ৫ থেকে ৬ বছর পর থেকেই দেশ খাদ্য উৎপাদনে আত্মনির্ভর হতে শুরু করে এবং সবুজ বিপ্লব, শ্বেত বিপ্লব, নীল বিপ্লব ইত্যাদি সম্ভব হতে থাকে। সব থেকে বড় কথা রাষ্ট্রীয় ব্যাঙ্ক গুলি জাতীয় উন্নয়নের পথকে প্রশস্ত করেছিল। রাষ্ট্রীয় ব্যাঙ্ক গুলি এই করোনা মহামারীর সময়ে আবার প্রমাণ করলো যে আমাদের দেশ এখনো রাষ্ট্রীয় ব্যাঙ্কের উপরই নির্ভরশীল। তাই দেশের একজন দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে সকলের কর্তব্য দেশের সম্পদকে বিক্রি হতে না দিয়ে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো"।

আগামী ১৯ জুলাই ব্যাঙ্ক জাতীয়করণ দিবস আর এই দিনটিকে সামনে রেখেই অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসার্স কনফেডারেশন ব্যাঙ্ক বেসরকারীকরণ রুখতে জোরদার আন্দোলনে নেমেছে।




Post a Comment

0 Comments