চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

ভ্যাকসিনের দাবিতে স্মারকলিপি


 

ভ্যাকসিনের দাবিতে স্মারকলিপি

 

কাজল মিত্র, আসানসোল : ভ্যাকসিনের দাবিতে ডেপুটেশন দিল কংগ্রেস। মঙ্গলবার পশ্চিম বর্ধমান জেলা কংগ্রেস কমিটির পক্ষ থেকে আসানসোল জেলা শাসক বিভূ গোয়েলের কাছে সকল মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার দাবিতে একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। পশ্চিম বর্ধমান জেলা কংগ্রেস কমিটির সভাপতি দেবেশ মজুমদার বলেন, যে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার করোনার মহামারী সম্পর্কে নিরপেক্ষ মনোভাব গ্রহণ করছে।জেলায় কোভিড হাসপাতালের অভাব রয়েছে। বেসরকারী হাসপাতালগুলি রোগীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করছে। একই সঙ্গে তিনি বলেন যে বেসরকারি হাসপাতালগুলি রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড এবং মেডিকেল কার্ডকে মান্যতা দিচ্ছেনা। সাধারণ মানুষ হাসপাতালে গেলে তাদের সাথে হাসপাতাল কতৃপক্ষ ঝামেলা করছে। বার্নপুরে একটি জাম্বো কোভিড কেয়ার হাসপাতাল সেল আইএসপি তৈরি করে এবং রাজ্য সরকারের কাছে হস্তান্তর করেছিল। তবে হাসপাতালে ভর্তি চার্জ প্রতিদিন তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকা হওয়ায় কেউ ভর্তি হচ্ছে না। একই সঙ্গে ভ্যাকসিনের দুর্নীতির সম্পর্কে বলেন, শাসকদল কেবল তার পরিবারের লোকেদের এই ভ্যাকসিন দিচ্ছে। সাধারণ মানুষ ভ্যাকসিন পাচ্ছেন না। সুতরাং জেলা করোনামুক্ত করতে হলে পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি মানুষকে কোভিড ভ্যাকসিন নিতে হবে। 


 বেসরকারী হাসপাতালে বিভিন্ন দুর্নীতি দমন করার জন্য মনিটরিং কমিটি গঠন করতে হবে। শেষ পর্যন্ত, তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে মন্তব্য করে বলেন, জেলার কংগ্রেস অফিস গুলি এখন তৃণমূলের দখলে। আসানসোলের রাহা লেন মোড়ে যে কংগ্রেস কার্যালয়টি ছিল সেটি সয়ং মন্ত্রী নিজেই দখল করেছেন। জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে অভিযোগ করা হলেও আজ অবধি কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। এদিন এই স্বারক লিপি প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন এস এম মোস্তফা, প্রশান্ত পান্ডে, প্রেম সিং, দেবাশীষ বিশ্বাস প্রমুখ।




Post a Comment

0 Comments