চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

তৃণমূলের সহযোগিতায় বাড়ি ফিরল ঘরছাড়া আটটি বিজেপি পরিবার


 

তৃণমূলের সহযোগিতায় বাড়ি ফিরল ঘরছাড়া আটটি বিজেপি পরিবার


কাজল মিত্র, পান্ডবেশ্বর : রবিবার পান্ডবেশ্বর ব্লকের গোগলা পঞ্চায়েত এলাকায় বাড়ি ফিরল ঘরছাড়া আট-টি বিজেপি পরিবারের সদস্যরা। তৃণমূল নেতাদের সহযোগিতাই এদিন তাদের বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করা হয় । এদিন সকালে মাধাইগঞ্জ কোলিয়ারি চত্বরে ঘর ছাড়া বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা জড়ো হন । সেখানে তাদের স্বাগত জানান শাসক দলের ব্লক সভাপতি সুজিত মুখোপাধ্যায়, দলের স্থানীয় অঞ্চল সভাপতি গৌতম ঘোষ সহ অন্যান্য তৃণমূল নেতারা । সুজিত বাবু নিজের হাতে ঘরে ফেরা বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মিষ্টি খাওয়ান । উল্লেখ্য ২-রা মে বিধানসভা ভোটের ফল প্রকাশের দিন এলাকাছাড়া হন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা । সেসময় বিজেপির পরাজিত প্রার্থী জিতেন্দ্র তিওয়ারি অভিযোগ করেছিলেন তৃণমূলের লাগামছাড়া সন্ত্রাসের কারণে এলাকা ছাড়তে বাধ্য হয়েছে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা । এদিন কিন্তু উল্টো সুর শোনা গেল ঘরে ফেরা বিজেপি কর্মী সমর্থকদের গলায় । বিজেপি কর্মী সরোজ বাউরি, মনোজ ঘোষ জানান সন্ত্রাস নয় ভয় পেয়ে নিজেরাই গ্রাম ছেড়ে অন্যত্র চলে গিয়েছিলাম। বাড়ি ফেরানোর জন্য বিজেপি নেতাদের কাছে সহযোগিতা চেয়েছিলাম। কিন্তু নেতারা কোনো সহযোগিতা করেনি বলে সাফ জানান তারা। অন্যদিকে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি সুজিত মুখোপাধ্যায় বলেন ঘর ছাড়া বিজেপি পরিবারগুলির সদস্যরা ঘরে ফেরার জন্য ব্যক্তিগতভাবে আমার সাথে যোগাযোগ করেছিল। আমি বিষয়টি দল ও এলাকার বিধায়ক নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী কে জানিয়েছিলাম । সবাই মিলে আলোচনা করে তাদের বাড়ি ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয় দল । বাড়ি ফেরার পর পরিবারগুলি যাতে কোন সমস্যার সম্মুখীন না হয় সেই বিষয়টিও দল দেখবে বলে জানান সুজিত বাবু। বাড়ি ফেরা বিজেপি পরিবারগুলির সদস্যদের কাছে জানতে চাওয়া হয় তারা তৃণমূলে যোগ দেবেন কিনা এই বিষয়ে সরোজ বাউরী, মনোজ ঘোষ-রা বলেন এখনই কোন রাজনৈতিক দলে যোগ দেওয়ার চিন্তাভাবনা। তবে আর কোনদিন বিজেপির সাথে কোনরকম যোগাযোগ রাখবেন না বলে তারা সব জানান ।




Post a Comment

0 Comments