চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

কবিগুরুর জন্মদিনে বিধায়কের শুভেচ্ছা বিনিময়


 

কবিগুরুর জন্মদিনে বিধায়কের শুভেচ্ছা বিনিময় 


অতনু হাজরা, জামালপুর : কবিগুরুর জন্মদিনে নিজের বিধানসভার এলাকার কর্মীদের সাথে মিলিত হলেন পূর্ব বর্ধমান জেলার জামালপুরের বিধায়ক অলক কুমার মাঝি। প্রসঙ্গত গত বিধানসভা ভোটে জামালপুরে জিতেছিলেন বাম বিধায়ক।স্বভাবতই এতদিন জামালপুরে শাসক দলের বিধায়ক না থাকায় উন্নয়ন সেভাবে হয় নি। আজ কবিগুরুর জন্মদিনে ১৩ টি অঞ্চলের দলীয় নেতৃত্বের সাথে মিলিত হন। সকলের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এর আগে কর্মীদের নিয়ে এই পরিস্থিতিতে কি করা উচিত সেই বিষয়ে আলোচনা করেন তৃণমূল কংগ্রেসের জামালপুর ব্লক সভাপতি মেহেমুদ খান। উপস্থিত ছিলেন ব্লকের যুব সভাপতি ভুতনাথ মালিক, সংখ্যা লঘু সেলের সভাপতি তাবারক আলী মন্ডল, জয়হিন্দ বাহিনীর সভাপতি সাহাবুদ্দিন মন্ডল সহ সাহাবুদ্দিন শেখ, ডা: প্রতাপ রক্ষিত, মৃদুল কান্তি মন্ডল ও অন্যান্যরা। প্রথমেই কবিগুরুর ছবিতে মাল্যদান করেন বিধায়ক অলক কুমার মাঝি, মেহেমুদ খান সহ অন্যান্যরা।




 বিধায়ক হবার সাথে সাথেই আজ বিধায়কের পক্ষ থেকে আগত মুসলিম সম্প্রদায়ের বড় খুশির উৎসব ঈদ উপলক্ষ্যে ১৩ টি অঞ্চলেই সংখ্যা লঘু মানুষদের উপহার হিসাবে পাঞ্জাবি, কুর্তি, লেগিংস, হ্যান্ডলুম শাড়ি, বিছানার চাদর, লুঙ্গি বাচ্চাদের জামা কাপড় সহ নানা ধরনের জিনিস, যা ওই ১৩ টি অঞ্চলের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়। মেহেমুদ খান জানান দীর্ঘদিন জামালপুরে শাসক দলের বিধায়ক ছিল না। কিন্তু দল তাঁকে এবারে নির্বাচনে ব্লক সভাপতির দায়িত্ত্ব দেওয়ায় তিনি সকলকে সঙ্গে নিয়ে অলক মাঝিকে জিতিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন। 




যদিও সব কৃতিত্ব তিনি দলনেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বলেছেন। এবার এই বিধায়কের হাত ধরেই জামালপুরের প্রকৃত উন্নয়ন শুরু হবে। তিনি সকল কর্মীদের এক হয়ে কাজ করার কথা বলেন।বিধায়ক অলক মাঝি বলেন জামালপুরের মানুষ তাঁকে আশীর্বাদ করে বিধায়ক করেছেন তিনি জামালপুরের সর্বাঙ্গীন উন্নয়নের দিকে নজর দেবেন বলে জানান। তিনি বলেন এবার নজর দিল্লী। আগামীদিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান।




Post a Comment

0 Comments