চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

শহর বর্ধমানে ছিঁচকে চোরের উপদ্রব বাড়ছে


 

শহর বর্ধমানে ছিঁচকে চোরের উপদ্রব বাড়ছে


ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : করোনা পরিস্থিতিতে শহর বর্ধমানের বিভিন্ন এলাকায় ছিঁচকে চোরের উপদ্রব বেড়েছে। বিশেষ করে বাড়ির বাইরের দিকে বিদ্যুতের আর্থিং করা যে তামার তার আছে সেই তার চোরেরা কেটে নিয়ে যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত প্রায় ৭০ থেকে ৮০ টি বাড়িতে এমন চুরির খবর পাওয়া গেছে। বিশেষ করে শহরের সুকান্তনগর, ইছলাবাদ, ক্ষুদিরামপল্লী, হ্যাচারী মাঠ ইত্যাদি এলাকাগুলির বাসিন্দারা ছিঁচকে চোরের উপদ্রবে অতিষ্ঠ। ঘরের বাইরে অথবা বারান্দায় কোনো কিছু রাখলেই পরের দিন সকালে আর পাওয়া যাবে না। গত দুদিনে সন্দীপ বক্সি, লক্ষীনারায়ণ মুখার্জী, বিশ্বরূপ ব্যানার্জী, ননীগোপাল মুখার্জী, চন্দ্রশেখর পাল এদের বাড়ি থেকে তার কেটে নিয়ে গেছে। সন্দীপ বক্সী বলেন, সকালে উঠে দেখি বাড়ির বাইরের দিকে বিদ্যুতের আর্থিং তারটি কেটে নিয়ে গেছে। দেখে পাড়ার কয়েকজনকে বলাতে দেখা যায় অনেকের বাড়িতেই চুরি হয়ে গেছে। চুরির উপদ্রব বাড়ছে। পুলিশ প্রশাসনের নজরদারি বাড়ানো দরকার।

এলাকাবাসীর অনুমান এই করোনা পরিস্থিতিতে অনেক মানুষের আর্থিক অবস্থা খারাপ হয়েছে তাই এই ছোটখাটো চুরি বাড়ছে। এই কাজ বিশেষ করে নেশাখোররাই করছে বলে অনুমান। তাদের দাবি, এলাকাগুলিতে পুলিশের নজরদারি বাড়ানোর প্রয়োজন। পুলিশ প্রশাসনের টহলদারি একটু বাড়লেই চোরেদের আনাগোনা কমতে পারে।



Post a Comment

0 Comments