চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর নতুন প্রকল্প "দুয়ারে ত্রান"

                                                                ছবি প্রতিকী
 


ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর নতুন প্রকল্প "দুয়ারে ত্রান"



ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : ঘূর্ণিঝড় যশ এবং প্রবল বর্ষণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বহু পরিবার। বিশেষ করে পূর্ব মেদিনীপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগনা-সহ কিছু জেলার মানুষের ক্ষয়-ক্ষতি সব থেকে বেশি। যশ বিদায় নিতেই বিপর্যস্ত এলাকার বাসিন্দাদের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার ১ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী নিজেই জানিয়েছেন এই খবর। তিনি বলেন, দুয়ারে সরকারের মতোই "দুয়ারে ত্রাণ" পৌঁছে দেবে সরকার। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, প্রাথমিক রিপোর্ট অনুযায়ী ১৫ হাজার কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে রাজ্যে। এই পরিমাণ আরও বাড়তে পারে। সেটা আগামী কয়েক দিনে স্পষ্ট হয়ে যাবে। আগামী ৩ জুন থেকে ‘দুয়ারে ত্রাণ’ প্রকল্প শুরু হবে চলবে ১৮ জুন পর্যন্ত। প্রতিটি গ্রামে গ্রামে ক্যাম্প করা হবে। সেই ক্যাম্পে এসে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ ক্ষতিপূরণের আবেদন করতে পারেন। এই আবেদন খতিয়ে দেখা হবে ১৯ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত। এরপর ১ জুলাই থেকে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি ক্ষতিপূরণের টাকা পৌঁছে যাবে। বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।




Post a Comment

0 Comments