চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী, দুয়ারে রেশন কর্মসূচির পাইলট প্রজেক্ট শুরু


 

নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী, দুয়ারে রেশন কর্মসূচির পাইলট প্রজেক্ট শুরু


অতনু হাজরা, জামালপুর : পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ভোটের আগে যে সমস্ত প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তারমধ্যে অন্যতম ছিল দুয়ারে সরকারের মত দুয়ারে রেশন কর্মসূচি।আজ সারা পশ্চিমবঙ্গে কয়েকটি ব্লকে পরীক্ষা মূলক ভাবে এই প্রকল্প চালু করা হলো। পূর্ব বর্ধমানের দুটি ব্লকে আজ এই কর্মসূচি পরীক্ষামূলক ভাবে শুরু হলো তার মধ্যে জামালপুর ব্লক অন্যতম। আজ জামালপুর ব্লকের জামালপুর ১ নং পঞ্চায়েতের বত্রিশবিঘা গ্রামে ২০ টি পরিবারের কাছে গিয়ে রেশন পৌঁছে দেওয়া হলো। এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বিধায়ক অলক কুমার মাঝি, জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান, পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ ভুতনাথ মালিক, জেলা সহ খাদ্য নিয়ামক বাবুয়া সর্দার, বিডিও শুভঙ্কর মজুমদার, ব্লক খাদ্য পরিদর্শক আজিজুল পাশা, জামালপুর ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান ডলি নন্দী, উপ প্রধান সাহাবুদ্দিন মন্ডল সহ অন্যান্যরা। 




রেশন দোকান থেকে মালপত্র গাড়িতে তুলে ওজন মেশিন নিয়ে ওজন দেখিয়ে উপভোক্তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।প্রসঙ্গত ১লা জুন থেকে এই পরিষেবা সর্বস্তরের মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানান। সেই জন্যই পরীক্ষা মূলক ভাবে আজ এই পরিষেবা চালু করা হলো বলে বিডিও শুভঙ্কর মজুমদার জানান।




      বিধায়ক অলক কুমার মাঝি বলেন, এক অভূতপূর্ব ব্যাপার। এই করোনা পরিস্থিতিতে মানুষকে আর রেশনের লাইনে দাঁড়াতে হবে না। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানান এই কর্মসূচির জন্য। জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান বলেন, মুখ্যমন্ত্রী যা বলেন তাই করে দেখান প্রধান মন্ত্রী মোদির মত মিথ্যা আশ্বাস দেন না। তিনি দুয়ারে রেশন চালু করবেন বলেছিলেন সেই প্রতিশ্রুতি পালনের প্রথম ধাপ আজ শুরু হয়ে গেল। পঞ্চায়েতের উপ প্রধান সাহাবুদ্দিন মন্ডল এই কর্মসূচির পরীক্ষামূলক ভাবে চালু করতে তাঁর পঞ্চায়েতকে বেছে নেওয়ার জন্য ব্লক প্রশাসন ও জেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান।