চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী # ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিশ্বজয়, ফ্রান্স কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান মেসি # জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেইন) এর প্রথমভাগের পরীক্ষা ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত # বর্ধমান জেলা রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন এর শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায় #সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে # পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার # #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জয়হিন্দ বাহিনীর ধিক্কার মিছিল


 

পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জয়হিন্দ বাহিনীর ধিক্কার মিছিল



ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : পেট্রল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে পূর্ব বর্ধমানে পথে নেমেছে তৃণমূল জয়হিন্দ বাহিনী। বৃহস্পতিবার সংগঠনের পূর্ব বর্ধমান জেলা কমিটির উদ্যোগে শহর বর্ধমানে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে ধিক্কার মিছিল হয়। বর্ধমান টাউন হলের সামনে থেকে লম্বা মিছিল বি সি রোড হয়ে রাজবাটী উত্তর ফটকে গিয়ে পৌঁছায়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল জয়হিন্দ বাহিনীর সভাপতি রবীন নন্দী, বর্ধমান শহর কমিটির সভাপতি পল্লব দাস, চেয়ারম্যান সমরজিৎ দাস সহ অন্যান্যরা।



 মিছিলে জয়হিন্দ বাহিনীর নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পা মেলান তৃণমূল কংগ্রেসের পূর্ব বর্ধমান জেলার চেয়ারম্যান ডাঃ মমতাজ সংঘমিতা চৌধুরী, জেলার মুখপাত্র প্রসেনজিৎ দাস, যুব তৃণমূলের জেলা সভাপতি রাসবিহারী হালদার, তৃণমূল কংগ্রেসের বর্ধমান শহর কমিটির সভাপতি অরূপ দাস প্রমুখ। এদিনের মিছিল থেকে স্লোগানে স্লোগানে বিজেপি'র বিরুদ্ধে তীব্র বিষোদগার জানায় নেতৃত্ব থেকে কর্মী-সমর্থকরা। পেট্রোপন্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদের পাশাপাশি কালা কৃষি বিলের বিরুদ্ধেও গর্জে ওঠে তৃণমূল নেতৃত্ব। 




মিছিল শুরু মুহূর্তে তৃণমূল জয়হিন্দ বাহিনীর নেতৃত্ব বলেন, দিন মত এগোচ্ছে মোদি সরকারের জনদরদী মুখোশ ক্রমশঃ খুলে পড়ছে। সাধারণ মানুষ বিজেপি'র জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে পথে নামতেই বিজেপি নেতারা ভুল বকতে শুরু করেছে। রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের উন্নয়নের ঢেউ শহর থেকে প্রত্যন্ত গ্রামেও পৌঁছেছে। দুয়ারে সরকার, পাড়ায় সমাধান সহ নানা কর্মসূচির দৌলতে বাংলার মানুষ তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কেই চাইবেন সেটা বলার অপেক্ষা রাখেনা। তাই রাজ্যের মানুষ কে বিভ্রান্ত করতে বিজেপি নেতৃত্ব পরিবর্তন যাত্রায় নেমেছে। অথচ দিল্লিতে মাসের পর মাস কৃষক আন্দোলন চলছে সেদিকে ভ্রুক্ষেপ নেই। আসলে বিজেপি সরকার দেশ বিক্রির খেলায় মেতেছে। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনেই পশ্চিমবঙ্গের মানুষ বিজেপি নেতৃত্বকে যোগ্য জবাব দেবে।

Post a Comment

0 Comments