চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

দুর্গোৎসব অভিনব উদ্যোগ : পুজোর প্রস্তুতি উপলক্ষে শিশুদের দেয়াল অঙ্কন প্রতিযোগিতা


 

দুর্গোৎসব অভিনব উদ্যোগ : পুজোর প্রস্তুতি উপলক্ষে শিশুদের দেয়াল অঙ্কন প্রতিযোগিতা


সত্যনারায়ন সিকদার ও অতনু ঘোষ, বিদ্যানগর : মহামারি করোনা ভাইরাসের কবলে পড়ে সমগ্র বিশ্বে এসেছে বড় পরিবর্তন। গতিময় পৃথিবীকে করেছে শান্ত। শান্ত পৃথিবী ধীরে ধীরে ফিরছে নিজস্ব ছন্দে। ভারতবর্ষের লকডাউন উঠে গেলেও আনা হয়েছে নানা নিয়ম। ব্যতিক্রম নয় পশ্চিমবঙ্গও। করোনা ভাইরাস উপেক্ষা করে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে, সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা পালনের প্রস্তুতির কাউন্টডাউনও শেষ পর্যায়ে। ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে প্রতিমা তৈরির কাজ। এখন প্রতিমাগুলো রঙিন করার কাজে ব্যস্ত প্রতিমাশিল্পীরা। তুলির টানে সুন্দর করে তোলা হচ্ছে দুর্গা, গণেশ, কার্তিক, সরস্বতী, লক্ষ্মী ও মহিষাসুরকে। পুজো উদ্যোক্তাদের মাঝেও এখন উৎসবের আমেজ। তারাও ব্যস্ত দেবীকে বরণ করে নেওয়ার জন্য। তবে আগমনীর সুর এবছর অনেকটাই ম্লান। এই পরিস্থিতিতে শিশুদের মাঝে আনন্দের বার্তা পৌঁছে দিতে পুজো উদ্যোক্তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিভিন্ন অনুষ্ঠান ইতিমধ্যেই শুরু করেছে। কোথাও দুস্থদের মাঝে বস্ত্র দান আবার কোথাও শিশুমনে দোলা দিতে শুরু হয়েছে দেওয়াল অঙ্কন প্রতিযোগিতা।

শনিবার আমরা পৌঁছে গেছিলাম রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর এলাকায়। পূর্বস্থলী ১নং ব্লকের বিদ্যানগর স্কুল সংলগ্ন পুজো মণ্ডপে। যেখানে পুজো প্রস্তুতি উপলক্ষে দেওয়ালে চলছে অংকন প্রতিযোগিতা। প্রতিবছরই পুজোর প্রস্তুতি উপলক্ষে এখানকার কচিকাঁচারা দেওয়ালে পূর্ণাঙ্গ শৈল্পিক ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করে। কেউ দেবী দুর্গার প্রতিচ্ছবি কেউ আবার আদিবাসী সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যকে ফুটিয়ে তুলছে রং তুলির মাধ্যমে। 

তবে শেষে বলতে ইচ্ছে করছে, করোনা অতিমারিকে দূরে ঠেলে চলুন না নিয়ম-নীতি মেনে এই পুজোর কটা দিন আনন্দে ভেসে যাই।


Post a Comment

0 Comments