চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

পাঁচশো তালগাছের চারা রোপণের কর্মসূচিতে নজির


 

পাঁচশো তালগাছের চারা রোপণের কর্মসূচিতে নজির


ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : পূর্ব বর্ধমান জেলায় একদিনে পাঁচশো তালগাছের চারা বসানোর কর্মসূচিতে নজির সৃষ্টি হলো। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বর্ধমান ওয়েভ এর উদ্যোগে এবং বর্ধমান ২ পঞ্চায়েত সমিতির ব্যবস্থাপনায় অভিনব এই বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি আয়োজিত হয়। সোমবার হাট গোবিন্দপুরের ওই তালচারা রোপণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের কর্মাধ‍্যক্ষ বাগবুল ইসলাম, মেহেবুব মন্ডল, গাছ মাস্টার অরূপ চৌধুরী, বৃক্ষবন্ধু সোমনাথ গুপ্ত,্ সহ সৌরেন্দ্র কোনার এবং পূর্বস্থলী জেলা প্রক‍ৃতি ও পশুপ্রেমী সংগঠন, বৃক্ষবন্ধু সমন্বয় দল ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বর্ধমান ওয়েভ এর সদস‍্যবৃন্দ।



 অনুষ্ঠানে বৃক্ষবন্ধু সমন্বয় দলের পক্ষ থেকে বৃক্ষবন্ধু সোমনাথ গুপ্ত গোটা জেলাজুড়ে খেজুর গাছ লাগানোর কথা ঘোষণা করেন। এদিন হাটগোবিন্দপুরের উড়েপাড়ায় একটি মঞ্চের উদ্বোধন করেন বর্ধমান ২ ব্লক ও পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শ‍্যামল দত্ত। তিনি বলেন মুখ‍্যমন্ত্রী মমতা ব‍্যানার্জীর উন্নয়ন যজ্ঞ এই ভাবেই চলবে। অন‍্য একটি অনুষ্ঠান থাকায় দেরিতে এসে উপস্থিত হন রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এবং সাংসদ মমতাজ সংঘমিতা চৌধুরী। 

বর্ধমান ওয়েভ এর সভাপতি পার্থ চৌধুরী বক্তব্য রাখতে গিয়ে তালগাছের নানা উপকারিতা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, তার এবং গাছের বিভিন্ন অংশ খাদ্য, পানীয়, জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এছাড়া তালপাতার তৈরি পাখার সমাদরতো রয়েছেই। এমনকি তার কাড়ি ঘরের কাঠামো তৈরির কাজে লাগে। তালগাছ ভূমিক্ষয় রোধ করে। যতবেশি তালগাছ থাকবে ততই সেখানকার ঘরে বা লোকালয়ে বাজ পড়ার সম্ভাবনা কমে যায়। তালগাছের কোন কিছুই ফেলা যায় না। তালরস, তালমাড়ি, তালগুড়ের পাটালি সবই সুস্বাদু। তাই সকলেই এগিয়ে আসুন তালগাছ রোপণ করুন। আগামীদিনে কুল, খেজুর বা এইধরণের গাছ প্রকৃতিতে ফিরিয়ে দেবার ভাবনা রয়েছে বর্ধমান ওয়েভের।


Post a Comment

0 Comments