চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

ভবানীপুর ৭৫ পল্লী'র দুর্গাপুজো, এবছরও সেরার দৌড়ে এগিয়ে


 

ভবানীপুর ৭৫ পল্লী'র দুর্গাপুজো, এবছরও সেরার দৌড়ে এগিয়ে




ডিজিটাল ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : কলকাতা শহরে ভবানীপুর ৭৫ পল্লী'র দুর্গাপুজো মানেই অভিনবত্ব কিছু থাকবেই। এবছর কোভিড ১৯ পরিস্থিতিতে ভবানীপুর ৭৫ পল্লীর পুজোর থিম "মা"। রবিবার সন্ধ্যায় ৫৬ তম বর্ষে এই পুজোর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 




দক্ষিণ কলকাতার শীর্ষস্থানীয় ক্লাবগুলোর মধ্যে ভবানীপুর ৭৫ পল্লী বর্তমানে এক উদীয়মান নক্ষত্র। সারা বছর তারা সমাজসেবামূলক কাজে যুক্ত থাকে। দুর্গাপুজোয় তাদের অভিনব ভাবনা এবং শিল্পকলার বাস্তবায়নে মানুষের চোখ ফেরানো দায় হয়ে যায়। অবিচ্ছিন্ন ভাবে গত কয়েক বছর ধরে ভবানীপুর ৭৫ পল্লীর দুর্গাপুজো থিমের বাহারে বিশ্বজুড়ে কয়েক মিলিয়ন মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে। বর্তমানে কোভিড ১৯ চলমান মহামারির কারণে প্রত্যেকের জীবন এক অচলাবস্থার মধ্যে চলছে। প্রত্যেকে মৃত্যুর আশঙ্কা করছেন। এই পরিস্থিতিতে এবছর পুজোর ৫৬ তম বর্ষে মানবতাকে বাঁচাতে "মা" থিমটি রেখেছেন উদ্যোক্তারা। এবছর সর্বশক্তিময়ীর কাছে প্রার্থনা করবে পৃথিবী দ্রুত স্বাভাবিক ছন্দে ফিরে আসুক। উদ্যোক্তাদের আশা ও বিশ্বাস করোনা রাক্ষসকে ধ্বংস করে দেবী দুর্গা এই পৃথিবীকে শীঘ্রই স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে দেবেন।




রবিবার রাতে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে ভবানীপুর ৭৫ পল্লী'র সম্পাদক সুবীর দাস বলেন, গতবছর ৫৫ তম বর্ষে বিশাল সাফল্যের পর ক্লাবের পুরো সকল সদস্য ভীষণ ভাবে উদ্দীপ্ত। এবছর ৫৬ তম বর্ষে তাদের পুজোর ভাবনা শিল্পকলায় নিখুঁত ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন তরুণ প্রতিভাবান শিল্পী অনিমেষ দাশ। সুবীরবাবু বলেছেন, তাদের দুর্গাপুজো সমগ্র বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরতে তারা এল এস ইউ (লন্ডন শারদ উৎসব) এর সাথে চুক্তি করেছেন। তবে এবছর সব রকম স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পুজোর আয়োজন করা হয়েছে। তবে বরাবরের মতো এবছরও প্রতিমা থেকে পরিবেশ, সৃষ্টি থেকে সুরক্ষা এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সবক্ষেত্রে স্বতন্ত্রতা বজায় রাখার জন্য ক্লাব সদস্যরা বিশেষ যত্নবান রয়েছেন।




বিগত বছরগুলোতে তাদের দুর্গাপুজোর ভাবনায় উঠে এসেছে 'নীল সাদায় এক টুকরো ভবানীপুর', 'মা-এর আঁচল', 'ও আমার দেশের মাটি', 'আরশিনগর', 'আমার স্বপ্ন ভবানীপুর - ই লন্ডন', 'উল্টে পাতা সোনাই কথা' এবং গত বছরের থিম ছিল 'নাগর দোলায় সবার পুজো'। আপামর জনসাধারণের বিশ্বাস ও প্রশংসায় ধন্য হয়ে ভবানীপুর ৭৫ পল্লী ৫৬ তম বছরেও আশাবাদী শিল্পকলার উপস্থাপনায় এবছরও সেরার মুকুট ছিনিয়ে নিতে সক্ষম হবে।



Post a Comment

0 Comments